মালয়েশিয়ায় নতুন করে দেওয়া লকডাউনে অ’নিশ্চয়তায় প্রবাসীরা

মালয়েশিয়ায় নতুন করে দেওয়া লকডাউনে অ’নিশ্চয়তায় প্রবাসীরা

যুক্তরাষ্ট্র স্বরূপে ফিরেছে: বাইডেন
ভিক্ষুকের মৃ’ত্যুতে শো’কের পোস্টার, দোয়া অনুষ্ঠানে হাজারো মানুষ
কুষ্টিয়ায় রেস্তোরাঁর পিৎজা-বার্গার খেয়ে ২৫ জন অ’সুস্থ

মালয়েশিয়া সরকার ১ম দফা করোনা পরিস্থিতি দক্ষতার সাথে মো;কাবেলা করে সবকিছু স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে যেতে শুরু করেছিল। ২৪ ঘণ্টায় দেশব্যাপী করোনা ভাইরাস সং;ক্রমণ মাত্র ১ ডিজিটে নেমে এসেছিল।

কিন্তু এ মাসের শুরুর দিকে হঠাৎ করে কোভিড-১৯ এর ২য় দফার ঢেউয়ে ২৪ ঘণ্টায় সং;ক্রমণ হাজার ছুঁই ছুঁই করছে। এমনিকে একদিনের আক্রান্তের সংখ্যা পূর্বের সকল রেকর্ড ভে;ঙ্গে ফেলেছে।

এমন অবস্থায় গত ১৪ অক্টোবর থেকে দুই সপ্তাহের জন্য সিএমসিও কন্ডিশনাল ল;কডাউন ঘোষণা করেছে মালয়েশিয়া সরকার।

দেশটির রাজধানী কুয়ালালামপুরের ৭টি উপশহর রে;ড জোন ঘোষণা করে এসব এলাকার বেসরকারি অফিসিয়াল কর্মীরা বাহিরে বের না হওয়ার নির্দেশনা দিয়েছে সিনিয়র মন্ত্রী দাতো সেরী ইসমাইল সাবরি ইয়াকুব। আর এই অবস্থায় চরম অ;নিশ্চিয়তায় রয়েছেন বাংলাদেশী ওয়ার্কার ও সাধারণ ব্যবসায়ীরা।

মালয়েশিয়ায় ম;হামারি কোভিড-১৯ এ অসংখ্য কর্মী কাজ হারিয়েছেন ও ব্যবসায়ীরা স;র্বস্ব হা;রানোর ক্ষ;তি এখনো কা;টিয়ে উঠতে পারেনি। এরমধ্যেই আবার নতুন লকডাউন তাদের চ;রম হ;তাশায় ফেলে দিয়েছেন।

আজ ২১ অক্টোবর বুধবার এফএমএম এর সভাপতি তান শ্রী সোহ থিয়ান লাই এক বিবৃতিতে উদ্বেগ জানিয়ে বলেছেন, এতে করে ওয়ার্কার ও কর্মীদের মাঝে অ;নিশ্চিয়তা ও বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়েছে। খবর: দেশটির জাতীয় দৈনিক “দ্য স্টার”

তান শ্রী সোহ থিয়ান লাই বলেন, সাধারণ কর্মীদের এ ব্যাপারে কোন সুনিদ্রিষ্ট স্পষ্ট নির্দেশনা না দেওয়ায় তারা কিভাবে কাজ করবেন তারা স্বী;দ্ধান্তহীনতায় ভু;গছেন। এই অবস্থায় বিষয়টি স্পষ্ট করার আহবান জানান সরকারের প্রতি।

আন্তর্জাতিক বাণিজ্য ও শিল্পমন্ত্রী দাতুক সেরি মোহাম্মদ আজমিন আলী আজ এক বিবৃতিতে বলেছেন, সিএমসিওর

আওতাধীন অঞ্চলে রেড-জোন এলাকায় সর্বাধিক ১০ শতাংশ কর্মীকে অফিসে শারীরিকভাবে উপস্থিত থেকে কাজ করার অনুমতি দেওয়া হবে।

বাকিদের বাসায় বসে কাজ করতে হবে। রাজধানীর রে;ড জোন এলাকাগুলো হচ্ছে, কোলাংয়ের ক্লেং, কাপাড়, সুনগাই বুলোহ, পেটালিং, দামানসারা, কাজাং এবং তানজং ১২ (১) এর সেলেঙ্গর উপ-জেলা।

COMMENTS

[gs-fb-comments]