হাজী সেলিমের দুদকের মামলার নথি হাইকোর্টে

হাজী সেলিমের দুদকের মামলার নথি হাইকোর্টে

সিরাজগঞ্জে দুই মহল্লাবাসীর ‘সং’ঘ’র্ষে আ’হত ৫
ইরফান সেলিমের ব্যক্তিগত সহকারী দিপু গ্রে’ফ’তার
রমজান মাসে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন দক্ষিণ আফ্রিকার অলরাউন্ডার

আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য (এমপি) হাজী মোহাম্মদ সেলিমের ১৩ বছরের দণ্ডের মামলার বিচারিক (নিম্ন) আদালতের যাবতীয় নথি (এলসিআর) হাইকোর্টে এসে পৌঁছছে। উচ্চ আদালত হাইকোর্টের নির্দেশে সংশ্লিষ্ট বিচারিক আদালত এসব নথি পাঠিয়েছেন।

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আইনজীবী খুরশীদ আলম খান জানান, গত ৮ ডিসেম্বর মামলার যাবতীয় নথি হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় এসেছে। এরপর বুধবার হাজী সেলিমের আপিলটি কার্যতালিকায় ওঠে। কিন্তু শাখা থেকে নথি

আদালতে আসেনি। এ কারণে আজকে নট টু ডে রাখা হয়েছিল। বৃহস্পতিবার আপিলটি ফের কার্যতালিকায় রয়েছে।

এর আগে গত ১১ নভেম্বর হাইকোর্টের বিচারপতি মো. মঈনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চ্যুয়াল বেঞ্চ নথি তলব করেন। আদালতে ওই দিন দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান। হাজী সেলিমের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী সাঈদ আহমেদ রাজা।

২০০৭ সালের ২৪ অক্টোবর হাজি সেলিমের বিরুদ্ধে লালবাগ থানায় অবৈধভাবে সম্পদ অর্জনের অভিযোগে মামলা করে দুদক। এ মামলায় ২০০৮ সালের ২৭ এপ্রিল তাকে ১৩ বছরের কারাদণ্ড দেন বিচারিক আদালত। ২০০৯ সালের ২৫

অক্টোবর এ রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপিল করেন হাজী সেলিম। ২০১১ সালের ২ জানুয়ারি হাইকোর্ট এক রায়ে তার সাজা বাতিল করেন। পরবর্তীতে হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করে দুদক। ওই আপিলের শুনানি শেষে ২০১৫ সালের ১২ জানুয়ারি হাইকোর্টের রায় বাতিল করে পুনরায় হাইকোর্টে শুনানির নির্দেশ দেন আপিল বিভাগ।

পরবর্তীতে চলতি বছরের ৯ নভেম্বর দুদকের আইনজীবী খুরশীদ আলম খান জানিয়েছিলেন, ৮ নভেম্বর তিনি দুদক থেকে এ মামলা পরিচালনার জন্য নিয়োগপ্রাপ্ত হয়েছেন। পরদিন ৯ নভেম্বর সোমবার মামলাটি শুনানির জন্য কার্যতালিকাভুক্ত

করতে তিনি আদালতে আবেদন (মেনশন) করেন। এরপর আপিলটি কার্যতালিকাভুক্ত হওয়ার পর ১১ নভেম্বর নথি তলব করেন হাইকোর্ট।

COMMENTS

[gs-fb-comments]