মাধ্যমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের দাবিতে প্রধানমন্ত্রীকে স্মারকলিপি

মাধ্যমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের দাবিতে প্রধানমন্ত্রীকে স্মারকলিপি

যারা গান-বাজনা করে বিয়ে করবে তাদের জানাজা নিষেধ ঘোষণা
বনানী কব’রস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত হবেন ক’বরী
সবাই ফোন করে,কিন্তু কেউ বিয়ে ক’রতে আসে না! –

মাধ্যমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণসহ ২৫ শতাংশের পরিবর্তে পূর্ণাঙ্গ ঈদ বোনাস প্রদানের দাবিতে প্রধানমন্ত্রীকে স্মারকলিপি দিয়েছে বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি ও এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ লিয়াজোঁ ফোরাম।

বুধবার (২৭ জানুয়ারি) বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি ও এমপিওভুক্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ লিয়াজোঁ ফোরামের সভাপতি মো. নজরুল ইসলাম রনি ও বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মো. মেছবাহুল ইসলাম প্রিন্স স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে উল্লেখ করা হয়, বর্তমান সরকার মাধ্যমিক ও কলেজ পর্যায়েও কিছু কিছু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণ বা সরকারীকরণ করেছে। কিন্তু একসাথে জাতীয়করণ না করার কারণে শিক্ষাক্ষেত্রে বৈষম্য দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন শিক্ষক-কর্মচারী, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা।

বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি (বাশিস) জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে অনুপ্রাণিত দেশ প্রেমিক একটি শিক্ষক সংগঠন। এ সংগঠন বাংলাদেশের স্বাধীনতা এবং মু’ক্তিযু;দ্ধের চেতনা ধারণ ও বহন করে। বঙ্গবন্ধুর শিক্ষাদর্শনকে বুকে ধারণ করে শিক্ষাক্ষেত্রে লড়াকু সৈনি’ক হিসেবে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বলা হয়, ১৯৭২ এর সংবিধানের ১৭(ক) ধারায় বঙ্গবন্ধুর শিক্ষাদর্শন অবৈতনিক শিক্ষার কথা তথা জাতীয়করণের কথা উল্লেখ থাকলেও স্বাধীনতার ৪৯ বছরেও তা বাস্তবায়ন হয়নি। এছাড়াও এমপিওভুক্ত শিক্ষকদের ২৫ শতাংশ ঈদ বোনাস দীর্ঘ ১৭ বছরেও পরিবর্তন হয়নি।

শিক্ষকগণ দীর্ঘ ২৮ বছরেও এমপিওভুক্ত হতে না পেরে চরম অর্থসংকটে দিনযাপন করছেন। এছাড়াও এমপিওভুক্ত শিক্ষক-কর্মচারী এবং সরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতন বৈষম্য আকাশ ছোঁয়া। তাই চলতি সংসদ অধিবেশনে মাধ্যমিক শিক্ষাব্যবস্থা জাতীয়করণ ঘোষণার দাবি জানান তারা।

স্মারকলিপিতে এমপিওভুক্ত শিক্ষক ও সরকারি শিক্ষকদের বেতন বৈষম্যের বিভিন্ন দিক তুলে ধরা হয়। এছাড়া স্মারকলিপির অনুলিপি শিক্ষামন্ত্রী, শিক্ষা উপমন্ত্রী, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালককে প্রদান করা হয়।

COMMENTS

[gs-fb-comments]