ঢাকাবাসীকে প্রধানমন্ত্রীর কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ

ঢাকাবাসীকে প্রধানমন্ত্রীর কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ

নিজেদের ডির্ভোস নিয়ে মুখ খুললেন সিদ্দিক ও মিম
আবেদন করলেই রাজউকের ফ্ল্যাট পাবেন এমপিরা: গণপূর্তমন্ত্রী
বন্যায় আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে স্কুল-কলেজ খুলে দেয়ার নির্দেশ

দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে নিজ দলের প্রার্থীদের বিপুল ভোটে বিজয়ী করায় ঢাকাবাসীর প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

রবিবার সকালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আইডিইবির ২৩তম জাতীয় সম্মেলনে দেয়া ভাষণের শেষ পর্যায়ে প্রধানমন্ত্রী এই কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানান।

শনিবার অনুষ্ঠিত ঢাকার দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে শেখ ফজলে নূর তাপস দক্ষিণে এবং আতিকুল ইসলাম উত্তরে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। বিজয় নিশ্চিত হওয়ার পর রাতেই দুই মেয়র প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে গণভবনে গিয়ে সাক্ষাৎ করেন। তখনও প্রধানমন্ত্রী সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভোটগ্রহণ করায় সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।

আইডিইবির সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী বহুল কাঙ্ক্ষিত পদ্মা সেতু প্রকল্প নিয়ে কথা বলেন। তিনি জানান, এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করা অনেক চ্যালেঞ্জ ছিল। কথিত দুর্নীতির অভিযোগ ওঠার পর নিজস্ব অর্থায়নে সেতুটি করার সিদ্ধান্ত বাংলাদেশের ভাবমূর্তি বিশ্ব দরবারে উজ্জ্বল করেছে। যে জাতি মুক্তিযুদ্ধ করে স্বাধীনতা লাভ করেছে সে জাতি মাথা নিচু করে থাকতে পারে না বলে জানান সরকারপ্রধান।

শেখ হাসিনা জানান, গত ১০ বছরে তার সরকার দেশের অনেক কিছু পরিবর্তনে সক্ষম হয়েছে। বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল। সরকারের ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকায় এটা সম্ভব হয়েছে বলে মনে করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী জানান, দেশে এখন দারিদ্র্যসীমা ২০.৫ ভাগ। মুজিব বর্ষে সেটা এক দুই ভাগ কমিয়ে আনা তার সরকারের লক্ষ্য। এভাবে উন্নয়ন অব্যাহত থাকলে দেশকে দারিদ্র্যমুক্ত ঘোষণা সম্ভব হবে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।

প্রকৌশলীদের নিজ নিজ অবস্থান থেকে দেশের উন্নয়নে কাজ করে যাওয়ার আহ্বান জানান সরকারপ্রধান। গণভবনকে জনগণের ভবন উল্লেখ করে আগামী সম্মেলনে প্রকৌশলীদের গণভবনে দাওয়াত করেন শেখ হাসিনা।

COMMENTS

[gs-fb-comments]