যুদ্ধজাহাজ ‘সংগ্রাম’-এর কমিশনিং করবেন প্রধানমন্ত্রী

যুদ্ধজাহাজ ‘সংগ্রাম’-এর কমিশনিং করবেন প্রধানমন্ত্রী

শাহজালাল বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনাল নির্মাণকাজ উদ্বোধন
খাদ্যের অপচয় রোধে গবেষণার আহ্বান পরিকল্পনামন্ত্রীর
ঢাকার খালে মিলল ফ্রিজ-টিভি লেপ-তোশক

বাংলাদেশ নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ বানৌজা ‘সংগ্রাম’-এর কমিশনিং উদ্বোধন হবে আজ। প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে সকাল সাড়ে ১০টায় ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে কমিশনিং অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় সূত্র জানায়, চীনে তৈরি বানৌজা ‘সংগ্রাম’-এর কমিশনিংয়ের মধ্য দিয়ে নৌবাহিনীর সক্ষমতা আরও বাড়বে।

৯০ মিটার দীর্ঘ ও ১১ মিটার প্রস্থের বানৌজা ‘সংগ্রাম’ ঘণ্টায় ২৫ নটিক্যাল মাইল বেগে চলতে সক্ষম। জাহাজটি আধুনিক প্রযুক্তির কামান, ভূমি থেকে আকাশে এবং ভূমি থেকে ভূমিতে নিক্ষেপণযোগ্য মিসাইল, অত্যাধুনিক থ্রিডি রাডার, ফায়ার কন্ট্রোল সিস্টেম, রাডার জ্যামিং সিস্টেমসহ বিভিন্ন ধরনের যুদ্ধ সরঞ্জামে সজ্জিত। হেলিকপ্টার অবতরণ ও উড্ডয়নের জন্য ডেক ল্যান্ডিংসহ অন্যান্য সুবিধাদি রয়েছে এই জাহাজে।

জানা গেছে, গভীর সমুদ্রে দীর্ঘ সময়ের জন্য মোতায়েন উপযোগী বানৌজা ‘সংগ্রাম’-এর মাধ্যমে বিশাল সমুদ্র এলাকায় অনুপ্রবেশ ঠেকানো, চোরাচালান ও জলদস্যুতা রোধ, সমুদ্রে উদ্ধার তৎপরতা, সমুদ্র অর্থনীতির বিভিন্ন কর্মকাণ্ড পরিচালনাসহ মৎস্য ও প্রাকৃতিক সম্পদ রক্ষার পাশাপাশি তেল, গ্যাস অনুসন্ধানের জন্য বরাদ্দকৃত ব্লকগুলোর অধিকতর নিরাপত্তা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে।

ফোর্সেস গোল ২০৩০ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সরকার সশস্ত্র বাহিনীর আধুনিকায়নে বহুমুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। তারই অংশ হিসেবে নৌবহরে যুক্ত হয়েছে আধুনিক প্রযুক্তি ও যুদ্ধ সরঞ্জামে সজ্জিত আধুনিক যুদ্ধজাহাজ, সাবমেরিন, হেলিকপ্টার ও মেরিটাইম পেট্রল এয়ারক্রাফট। নৌবহরের সক্ষমতা বৃদ্ধির অংশ হিসেবে যুদ্ধজাহাজ ‘সংগ্রাম’ নৌবাহিনীর বহরে যুক্ত হচ্ছে।

COMMENTS

[gs-fb-comments]