নোয়াখালীতে কালামের পর আরও একজন আট;ক

নোয়াখালীতে কালামের পর আরও একজন আট;ক

ধ’র্ষ’ণ ঠে’কাতে নেতাকর্মীদের পা’হা’রা দেয়ার নির্দেশ ছাত্রলীগ সভাপতির
কোল্ডস্টোরেজ-পল্লী বিদ্যুতের ঝামেলায় পচছে ২২ কোটি টাকার আলু
তিন দিনের সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জের একলাশপুরে গৃহবধূ;কে বি;ব;স্ত্র করে নির্যা;তনে;র ঘটনায় মাইন উদ্দিন সাহেদ নামে আরও একজনকে সন্দেহভাজন হিসেবে আটক করেছে পুলি;শ। বুধবার রাতে তাকে একলাশপুর থেকে আ;;টক করা হয়।

এর আগে মা;ম;লার অন্যতম আ;সামি দেলোয়ারের সহযোগী আবুল কা;লা;মকে কুমিল্লার দাউদকান্দির মারুফা নামক স্থান থেকে গ্রে;ফ;তার করে রাতেই বেগমগঞ্জ থানা পুলি;শের নিকট হস্তা;ন্তর করা হয়।

এ নিয়ে এ মামলায় এজাহারভুক্ত প্রধান আসামি বাদলসহ পাঁচ জন ও ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগ স্থানীয় ইউপি মেম্বারসহ চারজনসহ মোট ৯ জনকে গ্রে;ফতা;র করা হয়েছে। এদের মধ্যে সাতজনকে বিভিন্ন মেয়াদে রিমা;ন্ডে এনে থানায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

এদিকে ঘটনার মূল মাস্টারমাইন্ড দেলোয়ার হোসনকে অস্ত্রসহ র্যাব-১১ নারায়ণগঞ্জ থেকে গ্রেফতার করে। বর্তমানে তিনি র্যাব হেফাজতে দুই দিনের রিমান্ডে আছেন।

বেগমগঞ্জ মডেল থানার ওসি হারুনুর রশিদ চৌধুরী জানান, দেলোয়ারের বিরু;দ্ধে বেগমগঞ্জ থানায় নির্যা;তিতা না;রী যেহেতু ধ;র্ষণ মাম;লা করেছেন, সে মা;মলা;য় আমরা তাকে শোন এরেস্ট দেখিয়ে আদালতে ১০ দিনের রিমা;ন্ডের আবেদন করেছি। সেটি মঞ্জুর হলে তাকে আনা হবে।

তিনি বলেন, মামলার তিন নম্বর আসামি আবুল কালামের বিরুদ্ধে ধর্ষ;ণ, পর্নো;গ্রাফি ও না;রী নি;র্যাতন দমন আ;ইনে তিনটি মাম;লায় সাত দিন করে রিমা;ন্ডের আবেদন করে আজ বৃহস্পতিবার আদা;লতে নিয়ে যাওয়া হবে। বাকি আসামি;দের ধরতেও অভিযান চলছে।

COMMENTS

[gs-fb-comments]