খুলনার বাজারে হঠাৎ পেঁয়াজের ঝাঁজ

খুলনার বাজারে হঠাৎ পেঁয়াজের ঝাঁজ

২০ হাজার টাকায় শুরু করে এখন ৭ লাখ টাকার মালিক
সবজির বাজার চড়া, কমেছে সোনালী মুরগির দাম
করোনার প্রভাবে মহাসংকটে পোশাকশিল্প

খুলনার বাজারে হঠাৎ দেশী পেঁয়াজের দাম বেড়েছে। খুচরা বাজারে প্রতিকেজি পেঁয়াজের দাম ৩-৪ টাকা করে বেড়ে এখন ৩৮-৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

নগরের বড় বজারের পাইকারি বিক্রেতা কামরুল ইসলাম বলেন, ‘খুলনার বাজারে এখন বেশির ভাগ দেশী পেঁয়াজের যোগান ঝিনাইদহের শৈলকূপা থেকে আসছে। প্রতি মণ দেশী পেঁয়াজ সেখান থেকে ১ হাজার ৪০০ টাকা দিয়ে কিনতে হচ্ছে। প্রতিকেজির পরিবহন খরচ হচ্ছে প্রায় আড়াই টাকা। সেই হিসাবে ৩৫-৩৬ টাকার নিচে বিক্রি করলে লোকসান হবে।’

তিনি বলেন, ‘ভারত থেকে পেঁয়াজ না আসলে দেশী পেঁয়াজের দাম কিছুদিনের মধ্যে আরও বাড়তে পারে।’

খুলনা সিটি করপোরেশন পরিচালিত সোনাডাঙ্গার পাইকারি কাঁচাবাজারের পেঁয়াজ ব্যবসায়ী জানান, সেখানে ২৬টি পেঁয়াজের আড়ৎ রয়েছে। একটি আড়তেও ভারতীয় পেঁয়াজের যোগান নেই। লকডাউন ও পণ্য পরিবহন সংকটের কারণে খুলনার বাজারে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে। তারা কুষ্টিয়া ও ফরিদপুরের মোকাম থেকে পেঁয়াজ ক্রয় করে। সেখানকার কিছু ফড়িয়া ও দালাল কৃষকদের কাছ থেকে পেঁয়াজ কম দামে কিনে গুদামজাত করে বাজার অস্থিতিশীল করার অপচেষ্টায় রয়েছে।

বাজারের নিউ ফারাজী ভান্ডারের মালিক জানান, মাঝে পেঁয়াজের দাম কমে গিয়েছিল। হঠাৎ দাম বেড়েছে। ভারতীয় পেঁয়াজের আমদানি হলে দাম কমে যেতে পারে।

নগরের মির্জাপুর রোডে খুচরা পেঁয়াজ বিক্রেতা বেলাল জানান, ১০ দিন ধরে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে। পাইকারি বাজার থেকে তাকে বেশি দামে পেঁয়াজ কিনতে হচ্ছে। তিনি ভ্যানে ফেরি করে দুই কেজি পেঁয়াজ ১০০ টাকায় বিক্রি করছেন।

COMMENTS

[gs-fb-comments]