বাংলাদেশে বিয়ের খবরে মুখ খুললেন ‘পাখি’ খ্যাত মধুমিতা

বাংলাদেশে বিয়ের খবরে মুখ খুললেন ‘পাখি’ খ্যাত মধুমিতা

সালমান বিতর্কে এবার মুখ খুললেন মৌসুমী
‘শাকিবের সঙ্গে আমার তুলনা করলে তো হবে না’
‘যতটা প্রেমের তার চেয়ে বেশি দ্রোহের’

মধুমিতা সরকার। ওপার বাংলার জনপ্রিয় সিরিয়াল অভিনেত্রী। ‘সবিনয় নিবেদন’ নামে সিরিয়াল দিয়ে ২০১১ সালে যাত্রা শুরু করেছিলেন। তারপর একে একে অভিনয় করেছেন ‘কেয়ার করি না’, ‘বোঝে না সে বোঝে না’, ‘মেঘ বালিকা’,

‘কুসুম দোলা’ ইত্যাদি সিরিয়ালে।চলতি বছর বড়পর্দায় অভিষেক হয়েছে তার। অর্জুন চক্রবর্তীর সঙ্গে ‘লাভ আজকাল পরশু’ সিনেমায় দেখা গেছে তাকে।

বাংলাদেশে তিনি ‘পাখি’ নামে বেশ পরিচিত। ‘বোঝে না সে বোঝে না’ সিরিয়ালের তার চরিত্রটি বেশ দাগ কেটেছিল এপার বাংলার দর্শকের মনে। তারপর ‘পাখি’-কে শুধু পর্দায় বন্দি করে রাখা যায়নি। ‘পাখি জামা’, ‘পাখি মেহেদী’,

‘পাখি খাতা’, ‘পাখি আইসক্রিম’ দেখা গিয়েছে বাজারে। এ পাখিকে নিয়ে দুই বাংলার গণমাধ্যমেও বেশ চর্চা হয়। বিশেষ করে জনপ্রিয়তা পাওয়ার পর থেকেই। চর্চার মূল বিষয়- পাখি অর্থাৎ মধুমিতার ব্যক্তিগত জীবন।

ব্যক্তিগত জীবনে মধুমিতা ডিভোর্সি। অভিনেতা, প্রযোজক ও পরিচালক সৌরভ চক্রবর্তীকে ভালোবেসে ২০১৫ সালে বিয়ে করেছিলেন তিনি। এক ছাদের নিচে থাকা অসম্ভব হওয়ায় সম্প্রতি বিচ্ছেদ ঘটে তাদের। বিচ্ছেদ নিয়েও মধুমিতা বেশ আলোচনায় ছিলেন গণমাধ্যমে। নানা কথাও শুনতে হয়েছে তাকে।

এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘আমার ডিভোর্স হল। মিডিয়া বলতে শুরু করল, আমার নাকি অন্য পুরুষের সঙ্গে সম্পর্ক। মানে অন্য কোনো কারণ থাকতেই পারে না!’

নতুন প্রেমে মজেছেন এ অভিনেত্রী- বিচ্ছেদের পর টলিপাড়ায় ভাসছিল এমন গুঞ্জন। কথা উঠেছিল তার দ্বিতীয় বিয়ে নিয়েও। শোনা যাচ্ছিল, বাংলাদেশের ছেলেকে বিয়ে করতে পারেন মধুমিতা। এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হয় অভিনেত্রীর কাছে।

ফোনালাপে ১৭ নভেম্বর (মঙ্গলবার) তিনি বলেন, ‘আমাকে নিয়ে গুঞ্জনই বেশি ছড়ায়। ইউটিউবে গেলে দেখবেন, মারা গেছে যেসব অভিনেত্রী সেখানেও আমার মাথা ঢুকিয়ে দিয়েছে। বিয়ে নিয়ে আমার এখন কোনো ভাবনা-

চিন্তা নেই। বিয়ের ওপর আস্থাও নেই। আপাতত কাজগুলো মন দিয়ে করতে চাই। যারা গুঞ্জন ছড়ান তাদেরকে বলেছি, আমাকে মন দিয়ে কাজ করতে দিন।’

ব্যক্তিগত জীবনের এতো চর্চার ফলে বেশ বিরক্ত এ অভিনেত্রী। বিরক্তির সুরেই তিনি বলেন, ‘আমাকে নিয়ে এত গুঞ্জন, বাড়ির লোকেও চিন্তায় পড়ে যায়। কাজের জন্য কারও সঙ্গে ব্রেকফাস্ট করলেও অনেকে অনেক কিছু মনে করছে।’ তবে

এসব এড়িয়ে কাজে মনোযোগী হতে চান মধুমিতা। কী কাজ চলছে? জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আপাতত কাজগুলো

নিয়ে ইন্টারভিউ দেয়া বারণ। আপনি আমার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে জানতে চেয়েছেন আমি বলেছি। কিন্তু কাজগুলো নিয়ে বলতে পারব না। আপনি বরং এসভিএফের সঙ্গে যোগাযোগ করুন।’

সিরিয়ালে সফল এ অভিনেত্রী নিজেকে ভেঙেছেন বড়পর্দায়। প্রথম সিনেমাতেই অন্তরঙ্গ দৃশ্যে সাবলীল ছিলেন তিনি। পর্দায় প্রেম আর ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় করেও সমালোচনার মুখে পড়তে হয়েছে তাকে। এখানেও শুনতে হয়েছে নানা কথা।

২০২০ সালে প্রেমের সিনেমায় ঘনিষ্ঠ দৃশ্য থাকবে না সেটি আশা করা ভুল বলে মনে করেন মধুমিতা। এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘ইংরেজি ছবিতে অবাধ যৌন দৃশ্য দেখব। বিদেশিদের অজস্র বার চুমু খেতে দেখব। কিন্তু সেটা বাংলা ছবিতে দেখতে পেলেই একেবারে রে রে করে উঠব! এ রকম আর কত দিন চলবে বলুন তো?’ সূত্র: সময় নিউজকে

COMMENTS

[gs-fb-comments]