১০ই সেপ্টেম্বর মা হবেন নুসরাত, বিচ্ছেদ চেয়ে নিখিলের মা’ম’লা

১০ই সেপ্টেম্বর মা হবেন নুসরাত, বিচ্ছেদ চেয়ে নিখিলের মা’ম’লা

প্রথম বিবাহবার্ষিকীতে মিথিলা বললেন চিয়ার্স পার্টনার
৩৭ বছরের ছোট ছাত্রীকে বিয়ে করলেন অনুপ জালোটা!
পথে পথে ভিক্ষা করা কিশোরী এখন নামিদামি মডেল

বিনোদন ডেস্ক- রূপসী, সুন্দরী নুসরাত জাহানকে নিয়ে গুঞ্জন যেন থামছেই না। এমনিতেই খবরের শিরোনামে থাকতে চান এই অভিনেত্রী-সাংসদ। এবার তাঁর মা হওয়ার সংবাদে আরও তোলপাড়। কাহানি মে টুইস্ট দূরে থাকা স্বামী নিখিল জৈন অনাগত সন্তানের পিতৃত্ব অস্বীকার করায় এরপরই ভেসে ওঠে অভিনেতা যশ দাশগুপ্তর নাম।

 

যাঁর সঙ্গে নুসরাত ডেটিং করছেন প্রায় সাত আট মাস হয়ে গেল। শুধু ডেটিং নয়, লিভ টুগেদার করছেন নিজের বাল্লিগঞ্জের ফ্ল্যাটে। নুসরাত কিংবা যশ এ ব্যাপারে রহস্যের জাল জড়িয়ে রাখলেও সোমবার একটি গুঞ্জন আবার দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়ে টলিপাড়ায় যে, নুসরাত নাকি ছমাসের অন্তঃসত্ত্বা এবং তাঁর সন্তান জন্ম নেবে ১০ই সেপ্টেম্বর দক্ষিণ কলকাতার নামী একটি ক্লিনিকে।

 

মা হওয়ার খবরের মতো এই খবরটিকে স্বীকার অথবা অস্বীকার কোনোটাই করেননি নুসরাত। অন্যদিকে নুসরাতের স্বামী নিখিল জৈন দেওয়ানি মা’ম’লা করেছেন নুসরাতের বিরুদ্ধে বিচ্ছেদ চেয়ে।

 

নিখিল অবশ্য জানিয়েছেন, এই মা’ম”লা’র সঙ্গে নুসরাতের মা হওয়া বা না হওয়ার কোনো সম্পর্ক নেই। যেদিন তিনি জানতে পেরেছিলেন যে নুসরাত তাঁর সঙ্গে না থেকে অন্য কারও সঙ্গে থাকতে চায়, সেদিনই তিনি মা’ম’লার সিদ্ধান্তটি নিয়েছিলেন।

 

শুধু তাই নয়, আগামী জুলাই মাসে আদালতে এই মা’ম”লা’র শুনানিও রয়েছে বলে জানিয়েছেন নিখিল। নুসরাতের সঙ্গে ভবিষ্যতেও কোনও সম্পর্ক রাখতে চান না নিখিল, সেটিও স্পষ্ট করেছেন তিনি।

 

নিখিলকে ভালোবাসে বছর দুয়েক আগেই বিয়ে করেছিলেন নুসরাত। সামনেই অভিনেত্রীর দ্বিতীয় বিবাহবার্ষিকী। তবে বিয়ের দেড়-বছরের মাথাতেই দাম্পত্য সম্পর্কে বিরাট ফাটল ধরে। নিখিল জানান, নুসরাতের সঙ্গে তার সম্পর্ক জোড়া লাগার কোনো সম্ভাবনা নেই। দুজনের পথ সম্পূর্ণ আলাদা।

 

জানা গেছে, ২০১৯ সালের জুন মাসে তুরস্কের বোদরুমে দুটি রীতি মেনে বিয়ের পর্ব সেরেছিলেন এই জুটি, পরে শহরে ফিরে জুলাইয়ের শুরুতেই বসেছিল তাঁদের গ্র্যান্ড রিসেপশন। কিন্তু ঘনিষ্ঠমহল সূত্রে খবর, নুসরত-নিখিলের ম্যারেজ রেজিস্ট্রেশন হয়নি।

 

সেই কারণেই অ্যানালমেন্ট করেই নুসরাতের সঙ্গে আলাদা হতে চান নিখিল। হিন্দু ম্যারেজ অ্যাক্টের সেই নিয়মানুসারে, নুসরাতকে আদালতে গিয়ে বলতে হবে নিখিলের সঙ্গে তাঁর আর কোনও সম্পর্ক ভবিষ্যতে থাকবে না।

COMMENTS

[gs-fb-comments]