বলিউডের ২৫ তারকার নাম ফাঁ’স করেছেন রিয়া

বলিউডের ২৫ তারকার নাম ফাঁ’স করেছেন রিয়া

ফের একসঙ্গে শাহিদ-আলিয়া
আমার সময় ফু’রিয়ে আসছে: কঙ্গনা
আসিফের বিরুদ্ধে মুন্নির মামলা

বলিউডের অন্তত ২০ থেকে ২৫ জন তারকা মা’দকচক্রে জ’ড়িত বলে জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছেন অ’ভিনেত্রী রিয়া

চক্রবর্তী। সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃ’ত্যুর ৮৬ দিন পর আজ মঙ্গলবার দুপুরে তাকে গ্রে’প্তার দেখায় ভা’রতের মা’দক নিয়ন্ত্রণ ব্যুরো (এনসিবি)।

ভা’রতীয় সংবাদমাধ্যম জি নিউজের প্রতিবেদনে বলা হয়, এনসিবি’র জিজ্ঞাসাবাদে রিয়া চক্রবর্তী ও তার ভাই সৌভিক

জানিয়েছেন, বলিউডের অন্তত ২০ থেকে ২৫ জন তারকা মা’দক কারবারে জ’ড়িত। গত রোববার থেকে আজ মঙ্গলবার পর্যন্ত চলা জিজ্ঞাসাবাদে গাঁজা ও অন্য রাসায়নিক মা’দক সেবনের কথা স্বীকার করেছেন রিয়া।

সুশান্তের মৃ’ত্যুর পর থেকে সুবিচার চেয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সরব হয়েছেন কঙ্গনা রানাওয়াত। অ’ভিযোগ করেছেন, বলিউডের হাইপ্রোফাইল পার্টিতে অ’ভিনেতা-অ’ভিনেত্রী মা’দক সেবন করেন। ৯৯ শতাংশ সুপারস্টারই

মা’দকাসক্ত। এমনকি রণবীর সিং, রণবীর কাপুর, অয়ন মুখার্জির র’ক্তের নমুনা পরীক্ষারও দাবি করেন তিনি।

এমন অ’ভিযোগের মধ্যেই এনসিবি’র জিজ্ঞাসাবাদে রিয়া চক্রবর্তী ও শৌভিক জানান বলিউডের ২০ থেকে ২৫ জন তারকার নাম। ওই স্বীকারোক্তির ভিত্তিতে একটি তালিকা তৈরি করেছে এনসিবি। সেখানে নাম রয়েছে পরিচালক,

অ’ভিনেতা ও অ’ভিনেত্রীদের। সেই তালিকায় নাম থাকা তারকাদের মধ্যে কয়েকজন কেন্দ্রের শাসক দলের বিরোধী বলেও

পরিচিত। আগামী কয়েকদিনের মধ্যে তালিকায় থাকা তারকাদের ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে বলে জানা গেছে।

উল্লেখ্য, মোবাইল ফোন ও একাধিক তথ্য থেকে বলিউডের মা’দকচক্রের অস্তিত্বের প্রমাণ পেয়েছেন এনসিবির ত’দন্তকারীরা।গত ১৪ জুন মুম্বাইয়ের বান্দ্রার বাড়ি থেকে সুশান্ত সিংহ রাজপুতের ঝুলন্ত দেহ উ’দ্ধার হয়। শুরুতে মুম্বাই

পু’লিশের হাতেই ত’দন্তভা’র ছিল। পরে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে তা কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিবিআইয়ের হাতে ওঠে। সেই মা’মলায় রিয়ার হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট থেকে মা’দক সেবনের কথা উঠে আসে। এরপর আলাদা করে ত’দন্ত শুরু করে এনসিবি।

ওই ঘটনায় গত সপ্তাহে দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদের পর শুক্রবার রিয়ার ভাই শৌভিক ও সুশান্তের প্রাক্তন ম্যানেজার

স্যামুয়েল মিরান্ডাকে গ্রে’প্তার করা হয়। গ্রে’প্তার হন সুশান্তের হাউজ হেল্প দীপেশও। ৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত হেফাজতে রয়েছেন তারা।

COMMENTS

[gs-fb-comments]