চলে গেলেন অভিনেতা কে এস ফিরোজ

চলে গেলেন অভিনেতা কে এস ফিরোজ

বিয়ে করার মত ছেলে পাচ্ছেন না অভিনেত্রী সাফা কবির
সিয়ামকে দেখতে শুটিংস্পটে রাজ্যের ভিড়
বলিউ;ডে নাম লেখা;লেন সুস্মিতা সেনের মেয়ে

করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেলেন নাট্য ও চলচ্চিত্র জগতের বিশিষ্ট অভিনেতা কে এস ফিরোজ। বুধবার সকাল সাড়ে ছয়টার দিকে রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) তিনি শেষ নিঃশ্বাস ছাড়েন। (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৬ বছর।

অভিনেতার মৃত্যুর বিষয়টি সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন জনপ্রিয় নাট্য নির্মাতা চয়নিকা চৌধুরী। তিনি বলেন, মৃত্যুর সময় কে এস ফিরোজের জ্বর ও শ্বাসকষ্ট ছিল। তবে তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন কি না, পরীক্ষা না করানোয় তা জানা যায়নি।

চয়নিকা আরও বলেন, ‘কে এস ফিরোজকে মঙ্গলবার সিএমএইচে ভর্তি করা হয়। এদিন চিকিৎসকরা পরীক্ষা করে জানান, তার নিউমোনিয়া হয়েছে। এরপর ইনজেকশন দিলে অভিনেতার অবস্থা আরও খারাপ হয়। ভেন্টিলেশনে থাকা অবস্থায় তিনি মারা যান। আমার বহু নাটকে তিনি অভিনয় করেছেন। এমন দুঃসংবাদ মেনে নিতে পারছি না।’

বরিশালে জন্ম নেয়া কে এস ফিরোজ একজন সাবেক সেনা কর্মকর্তা। ১৯৭৭ সালে তিনি মেজর পদে থাকাকালীন চাকরি থেকে অব্যাহতি নেন। এরপর পেশা হিসেবে বেছে নেন অভিনয়কে। তার অভিনয়ে হাতেখড়ি হয়েছিল মঞ্চ নাটকের মাধ্যমে। বিটিভিতে প্রচারিত ‘দীপ তবুও জ্বলে’ শিরোনামের একটি নাটকে তিনি প্রথম অভিনয় করেন।

দীর্ঘ ক্যারিয়ারে বহু নাটকে তিনি অভিনয় করেছেন। কখনো বড় ভাই, কখনো দায়িত্বশীল বাবার চরিত্রে। অসংখ্যা বিজ্ঞাপনেও তাকে দেখা গেছে। এছাড়া অভিনয় করেছেন কয়েকটি চলচ্চিত্রেও।

গুণী এই অভিনেতার মৃত্যুতে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে শোক জানিয়েছেন বিনোদন জগতের বহু তারকা এবং তার সহকর্মীরা। কে এস ফিরোজের পরিবারে বর্তমানে তার স্ত্রী এবং তিন মেয়ে রয়েছে। প্রয়াত অভিনেতার আত্মার মাগফেরাতের জন্য তারা সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন।

COMMENTS

[gs-fb-comments]