শুরুতে বিষ’য়গুলো খুব একটা পা’ত্তা দিইনি, এখন আ’তঙ্ক’গ্রস্ত হয়ে প’ড়ছিঃ ক্ষুব্ধ ববিতা

শুরুতে বিষ’য়গুলো খুব একটা পা’ত্তা দিইনি, এখন আ’তঙ্ক’গ্রস্ত হয়ে প’ড়ছিঃ ক্ষুব্ধ ববিতা

আইয়ুব বাচ্চুকে হা’রিয়ে জেমসে’র কা’ন্নায় সেদিন ভেসেছি’লো বাংলাদেশ
ঢাকায় এসেছেন ‘থ্রি ইডিয়টস’র ফুংসুখ ওয়াংড়ু
কপি করে বেশিদূর যাওয়া যায় না : রাণুকে লতা

কানা’ডায় থাকা চিত্রনা’য়িকা ববিতার একমাত্র সন্তান অনীক ইস’লামকে নিয়ে ফেসবুকে প্রতার’ণার ফাঁদ পেতেছে একটি

চক্র। তারা অনীকের নাম ভাঙিয়ে বিভিন্ন জনের কাছ থেকে চাঁদা দাবি করছে। বিষ’য়টি ব’বিতার নজরে

আসার পর তিনি বিস্মি’ত হয়েছেন। তিনি এই প্রতা’রণা’র ফাঁদে কা’উকে পা না দেয়ার আহ্বা’ন জানিয়েছেন।

ববিতা জানান, কিছু দিন আগে তার নাম ভাঙিয়েও ফেস’বুকে প্রতা’রণা করেছে আরেকটি চক্র। বিষয়’টি নিয়ে পত্রপ’ত্রি’কায় লেখালেখি শুরু হলে প্রতার’ক চ’ক্র কিছু দিন চুপচাপ ছিল। কিন্তু সম্প্র’তি ছে’লেকে জড়ি’য়ে ফেসবু’কে এমন অ’পক’র্মের খ’বর জানতে পেরে বিস্মিত ও হতবা’ক হয়ে’ছেন তিনি।

ক্ষুব্ধ ববিতা জানান, তার একমাত্র ছে’লে অনীক ইস”লাম কানাডায় থাকেন। ফেসবুকে তার কোনো আ’ইডি নেই। অথচ অনীকের নামে ফেস’বুক আইডি খুলে প্রতারকরা ববিতার পরিচিতজনদের কাছ থেকে চাঁদা চাচ্ছে। পারিবা’রিক ছবি’গুলো

ইনবক্সে দিয়ে প্রমাণের চেষ্টা’ করছে, সে ববিতা’র সন্তা’ন। কেউ কেউ ই’তিমধ্যে প্র’তারণা’র ফাঁদে পা দিয়েছে। কেউ কেউ ববিতাকে ফোন করে বি’ষয়টি জা’নিয়েছে।

ক্ষুব্ধ ববি’তা আরও বলেন, আমি নিজেও কো’নো দিন ফেস’বুক ব্যবহার করিনি। অথচ প্রায়ই আমাকে শুনতে হয়, আপনি তো আমা’র ফেস’বুক ফ্রেন্ড। আপনার সঙ্গে মেসে’ঞ্জারে আলাপটা সেদিন ভালোই জমে উঠে’ছিল! শুনে তো

আ’কাশ থেকে পড়ার অব’স্থা। আমা’র বি’ভিন্ন অনু’ষ্ঠানে’র এবং ঘরের দু’র্লভ স্থিরচি’ত্রও ওই ফেসবুক থেকে প্রকা’শ ক’রে দেয়া হয়।

শুধু তাই নয়, আমি নাকি দেশের বাইরে থাকা অবস্থায় মেসে’ঞ্জারে কার কার কাছে টাকা চেয়েছি। পুরো বিষ’য়টি আমা’র জন্য ভী’ষণ অস্ব’স্তিক’র।

ববিতা বলেন, শুরুতে বিষ’য়গুলো খুব একটা পা’ত্তা দিইনি, কিন্তু ছে’লেকে নিয়ে যে বা যারা এমনটি করছে, আ’তঙ্ক’গ্রস্ত হয়ে প’ড়ছি।

বাংলা সি’নেমা’র এককা’লের রানি বলেন, আ’মাদের পরিবা’রের কেউ-ই ফেসবু’ক ব্যবহার করি না। তাই এ ধরনের ফাঁদে কেউ পা দেবেন না; এমন আচ’রণ যারা করবে, তাদের বিশ্বা’স করবেন না।

COMMENTS

[gs-fb-comments]