ইউরেনিয়ামের মজুদ ১২ গুণের বেশি বৃ’দ্ধি করেছে ইরান

ইউরেনিয়ামের মজুদ ১২ গুণের বেশি বৃ’দ্ধি করেছে ইরান

ওমানে খুলে দেওয়া হল বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান
মহাকাশ জয়ী গর্বিত ১১ মুসলিম নভোচারী
একদিনে করোনায় আক্রান্ত প্রায় পৌনে ৩ লাখ, মৃত ৬৩৩৮

আন্তর্জাতিক একটি চুক্তির আওতায় ইউরেনিয়ামের মজুদ ১২ গুণের বেশি বৃদ্ধি করেছে ইরান। গ্লোবাল ওয়াচডগ এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। ইন্টারন্যাশনাল অ্যাটমিক এনার্জি এজেন্সি (আইএইএ) বলছে, এখন ইরানের ইউরেনিয়ামের মজুদের পরিমাণ প্রায় ২ হাজার ৪৪৩ কেজি।

মূলত পারমানবিক বোমা তৈরিতে ইউরেনিয়াম ব্যবহার করা হয়। তবে ইরান সবসময়ই দাবি করে আসছে যে, তারা শান্তিপূর্ণ কাজে ব্যবহারের জন্য পারমাণবিক কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছে।

এর আগে গত সেপ্টেম্বরে ইউরেনিয়ামের মজুদ ১০ গুণ বৃদ্ধি করেছিল ইরান। সে সময় ইরানের ইউরেনিয়ামের মজুদের পরিমাণ ছিল ২ হাজার ১০৫ কেজি।

আইএইএ বলছে, অঘোষিত স্থানে পারমাণবিক উপাদানের উপস্থিতির পক্ষে ইরানের ব্যাখ্যা বিশ্বাসযোগ্য নয়।

এক টুইট বার্তায় ইরানে আইএইএর দূত গারিব আবাদি বলেন, এ বিষয়ে তাৎক্ষণিক কোনো মন্তব্য করা উচিত নয়। তিনি বলেন, এই বিষয়টি সমাধানের জন্য ইরানের সঙ্গে আলোচনা চলছে।

আইএইএর সর্বশেষ রিপোর্টে ইরানে পারমাণবিক উপাদান পাওয়ার কথা জানালেও দেশটির কোন অঞ্চলে বা পরমাণু কেন্দ্রে এসব উপাদান পাওয়া গেছে সে বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি।

একটি সূত্র এএফপি নিউজ এজেন্সিকে জানিয়েছে যে, এগুলো ইউরেনিয়াম প্রক্রিয়াকরণের জন্য ব্যবহৃত হয়েছিল এমন কোনও ইঙ্গিত পাওয়া যায়নি। তবে এসব উপাদান হয়তো সংরক্ষণের জন্য রাখা হয়েছে।

চুক্তি অনুযায়ী পরমাণু অস্ত্র বানাতে প্রয়োজনীয় ইউরেনিয়ামের চেয়ে অনেক কম মাত্রায় ইউরেনিয়াম ইরানের উৎপাদন করার কথা। আইএইএ জানিয়েছে, ইরান ক্রমাগত তাদের পরমাণু সমৃদ্ধি বাড়িয়ে যাচ্ছে।

২০১৫ সালের আন্তর্জাতিক চুক্তি অনুযায়ী, ৩.৬৭ শতাংশ পরমাণুর মজুদ থাকার কথা থাকলেও এর চেয়ে অনেক বাড়ানো হয়েছে। চুক্তির বাইরে পরমাণুর মজুদ বাড়িয়ে চলেছে দেশটি।

COMMENTS

[gs-fb-comments]