বরফে ঢেকে গেছে নিউইয়র্কের হুভার

বরফে ঢেকে গেছে নিউইয়র্কের হুভার

কাতারকে অত্যাধুনিক কোন যু’দ্ধ’বিমান কিনতে দেবে না ইসরাইল!
সৌদি আরবের সব আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বাতিল
নাগরিকদের মতো গরু-মহি’ষেরও পরিচয়পত্র দিবে ভারত!

দেখে মনে হচ্ছে একের পর এক বরফের তৈরি প্রাসাদ! নিউইয়র্কের হুভার সৈকতের কাছে গেলে দেখা যাবে এই বাড়িগুলিকে। টানা দু’দিন তুষারপাত ও হিমেল হাওয়ার দাপটে এমনই চেহারা নিয়েছে বাড়িগুলি।

হামবুর্গের এরি লেকের কাছে বসবাসকারীরা এই সপ্তাহান্তে ঘুম ভেঙে আবিষ্কার করেন, তাদের বাড়ি ঢেকে গিয়েছে পুরু বরফে। কোনো কোনো বাড়িতে বরফ ঢেকে দিয়েছে জানলা-দরজাও। ভিতরে আটকে পড়েছেন বাসিন্দারা। গোটা বাড়ি অন্ধকারাচ্ছন্ন! হিম বাতাসে এরি লেকের পানিতে ১৮ ফুট ঢেউয়ের ফলে বরফ জমে গিয়েছে এলাকায়।

হুভার সৈকতের এক বাড়ির মালিক ও বাসিন্দা এড মিস জানান, অন্যবারও এখানে বরফ পড়ে। কিন্তু এবারের মতো পরিস্থিতি কখনও হয়নি। তিনি জানান, ‘আমি অন্য দরজা দিয়ে বাড়ি থেকে বেরোলেও ফিরতে গিয়ে বরফ ভেঙে ঘরে ঢুকতে হয়েছে’।

বরফ ঢাকা ঘরবাড়ির ছবিগুলি ভাইরাল হয়েছে। অনেকেরই এই ছবিগুলি দেখে মনে পড়ছে ‘নার্নিয়া’ কিংবা ‘ফ্রোজেন’ এর মতো সিনেমার দৃশ্যের কথা।

এই অদ্ভুত বরফ-ঢাকা দৃশ্যাবলির জন্য এই জায়গাটি হয়ে উঠেছে পর্যটকদের আকর্ষণের কেন্দ্র। অনেকেই এখানে ভিড় জমাচ্ছেন নিজের চোখে তুষারাবৃত বাড়িগুলি দেখতে। কিন্তু হামবুর্গ পুলিশ সোশ্যাল মিডিয়ায় সকলকে সতর্ক করে জানিয়েছে, বাড়ির মালিকদের ব্যক্তিগত গোপনীয়তার প্রতি তারা যেন সম্মান দেখান।

ওই পোস্টে জানানো হয়, ‘এই বরফ যে কেবল অনিরাপদ ও ঠুনকো তাই-ই নয়, এই এলাকার অধিকাংশ বাড়িই কিন্তু ব্যক্তিগত সম্পত্তি। আমরা জনগণকে জানাতে চাই বরফ থেকে দূরে থাকতে এবং ব্যক্তিগত মালিকানাধীন সম্পত্তিতে প্রবেশ না করতে।’

COMMENTS

[gs-fb-comments]