২ বছর গাছের যত্ন করে সত্য জেনে বিস্মিত নারী

২ বছর গাছের যত্ন করে সত্য জেনে বিস্মিত নারী

বিয়ে রেখে ভোট দিতে লাইনে দাঁড়িয়ে বর
একদিনে করোনায় আক্রান্ত ও সুস্থ লাখ পার, মৃত্যু ৫ হাজার
ইসরাইলকে দর্প চূর্ণ করে দিয়েছে হিজবুল্লাহ

পরিবেশ সুন্দর রাখতে ও অক্সিজেনের ঘাটতি কমালে অনেকেই বাড়িতে গাছ রোপণ করেন। বারান্দায়, জানালায় ও টেবিলে রাখা টবে এসব গাছ শোভা পায়।

তবে গাছ লাগিয়ে দুই বছর পরিচর্যার পর এক নারী জানলেন, এতদিন ধরে পণ্ডশ্রম করে আসছিলেন তিনি।

গাছটি নাকি নকল! চোখের সামনে রেখেও এই দুই বছরে তা ঘুণাক্ষরে টের পাননি তিনি।

সম্প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বাসিন্দা কেলি উইলকসের বেলায় ঘটেছে এ আজব ঘটনা।

এ বিষয়ে গত শুক্রবার ফেসবুকে স্ট্যাটাসও দিয়েছেন তিনি।

কেলি বলেন, ‘দুই বছর আগে একটি নার্সারি থেকে চমৎকার দর্শন গাছটি কিনি। গাছটির জন্য নিজেকে গর্বিত মনে করতাম। কারণ আমার এই গাছের মতো সুন্দর কিছু বন্ধুমহলে আর কারও ছিল না। এটি দেখতে ছিল ঝকঝকে সবুজ ও নিখুঁত। রান্নাঘরের জানালায় রেখে দিয়েছিলাম একে। রোজই পানি দিতাম, প্রায়ই সার দিতাম। অন্য কেউ পানি দিলে রেগে যেতাম। কারণ আমি একাই এর পরিচর্যার জন্য যথেষ্ট ছিলাম। কিন্তু এত পরিচর্যার পরও গাছটি বড় হচ্ছিল না। এতে কোনেই পরিবর্তন আসছিল না। পরে একজনের পরামর্শে গাছটিকে বড় একটা টবে লাগাতে দিয়েই ধরা পড়ল বিষয়টি। জানলাম, দুই বছর ধরে যত্ন নেয়া প্রিয় গাছটিতে আদৌ কোনো প্রাণ ছিল না। গাছটি নকল! প্লাস্টিকের তৈরি।’

দুই বছর ধরে একটি মিথ্যাকে লালন করায় নিজের ওপর বেশ বিরক্ত হয়েছেন কেলি।

এদিকে কেলির এমন পোস্টের মন্তব্যের ঘরে অনেকেই নানা রকম বার্তা দিচ্ছেন।

একজন লিখেছেন, ‘আমিও কেলির মতো অফিসে এমন গাছ লাগিয়েছি, যা দেখে বাকিরা চমৎকৃত। কিন্তু তিনি আসলে প্লাস্টিকের গাছই লাগিয়েছেন।’

COMMENTS

[gs-fb-comments]