বর্ণবাদের প্রতিবাদ করায় এনবিএ’র সমালোচনা করলেন ট্রাম্প

বর্ণবাদের প্রতিবাদ করায় এনবিএ’র সমালোচনা করলেন ট্রাম্প

একদিনে করোনায় আক্রান্ত ৩ লক্ষাধিক, মৃত্যু ৫৬৮৩
তালেবান-নিরাপত্তা বাহিনী সংঘর্ষে রক্তাক্ত আফগানিস্তান, নিহত অর্ধশত
ভারতীয় তরুণী সিয়ানি হলেন আয়েশা

উইসকনশিন প্রদেশের কেনোশা শহরে অ্যাফ্রো-আমেরিকান কৃষ্ণাঙ্গ জ্যাকব ব্লেককে পুলিশের নির্মম গুলিবিদ্ধ করার ঘটনায় ফের গর্জে উঠেছে মার্কিন মুলুক। প্রতিবাদে বুধবার স্থগিত ছিল এনবিএ’র তিনটি ম্যাচ। ব্লেকের ঘটনায় প্রতিবাদ জানিয়ে প্রথম কোর্টে নামতে অস্বীকার করেছিল মিলবাউকি বাকস। যার জেরে পরবর্তীতে গোটা দিনের সূচি বাতিল হয়ে যায়। তবে বর্ণবাদ, সামাজিক বৈষম্যের প্রতিবাদ জানিয়ে এনবিএ’র এই পদক্ষেপের কড়া সমালোচনা করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রিমিয়র বাস্কেটবল লিগকে ‘রাজনৈতিক সংগঠন’ আখ্যা দিলেন ট্রাম্প। ইদানিং এনবিএ নাকি রাজনৈতিক সংগঠনগুলোর মতো আচরণ করছে বলে জানিয়েছেন তিনি। ওয়াশিংটনে সাংবাদিকদের ট্রাম্প বলেছেন, ‘আমি এনবিএ’র প্রতিবাদ সম্বন্ধে বিশেষ কিছু বলতে পারব না। তবে ওদের রেটিং সাম্প্রতিক সময়ে পড়তে শুরু করেছে কারণ সাধারণ মানুষ এনবিএ নিয়ে বেশ ক্লান্ত।’

জ্যাকব ব্লেককে গুলিবিদ্ধ করার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে মিলবাউকি বাকসের পদাঙ্ক অনুসরণ করে বুধবার আরও ৫টি টিম কোর্টে নামতে অস্বীকার করে। মার্কিন মুলুকে ফ্লয়েড ঘটনার পুনরাবৃত্তিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় ফের ‘পরিবর্তন’ দাবি করে সুর চড়ান এল জেমসের মতো একাধিক এনবিএ তারকা। মিলবাউকির পাশাপশি অরল্যান্ডো, বস্টনের মত একাধিক টিম সোশ্যাল মিডিয়ায় প্লেয়ারদের এই প্রতিবাদী পদক্ষেপকে সমর্থন জানানোর অনুরোধ করে।

এনবিএ’র গন্ডি ছাড়িয়ে প্রতিবাদের ঢেউ পরবর্তীতে ছড়িয়ে পড়ে মার্কিন মুলুকে চলতে থাকা সিনসিনাটি ওপেন, মেজর লিগ সকারেও। বুধবার টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনাল জয়ের পর বৃহস্পতিবার সেমিফাইনাল বয়কট করেন জাপানের মহিলা টেনিস তারকা নাওমি ওসাকা। পরবর্তীতে বৃহস্পতিবার বন্ধ থাকে সিনসিনাটির সমস্ত ম্যাচ। প্রতিবাদে ম্যাচ স্থগিত রাখা হয় এমএলএস এবং এমএলবি’তেও। সবমিলিয়ে এনবিএ’র দেখানো পথ ধরেই প্রতিবাদ ছড়িয়ে পড়ে মার্কিন মুলুকের বিভিন্ন ক্রীড়াক্ষেত্রে। আর সেই কারণেই জর্জ ফ্লয়েড হত্যার প্রতিবাদের কথা স্মরণ করে এনবিএ’কে একহাত নেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

সিনসিনাটি ওপেন থেকে নাওমি ওসাকার নাম প্রত্যাহারের বিষয়টিও বেশ সাড়া ফেলেছে। প্রতিবাদে টুইটবার্তায় দু’বারের গ্র্যান্ড স্ল্যামজয়ী জানান, ‘আমি আগে একজন কৃষ্ণাঙ্গ। আর একজন কৃষ্ণাঙ্গ মহিলা হিসেবে আমি মনে করি আমার খেলা দেখার চেয়ে এই মুহূর্তে অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে মনোযোগ দেওয়ার আছে। আমার বলছি না যে আমি না খেললে রাতারাতি সব বদলে যাবে। তবে আমার নাম প্রত্যাহারে শ্বেতাঙ্গ মহলে যদি আলোচনা শুরু হয় তাহলে মনে করব আমার পদক্ষেপ সঠিক ছিল।’ যদিও পরে আলোচনার মাধ্যমে সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসে সেমিফাইনালে নামবেন বলে জানিয়েছেন ওসাকা।

COMMENTS

[gs-fb-comments]