তালেবান-নিরাপত্তা বাহিনী সংঘর্ষে রক্তাক্ত আফগানিস্তান, নিহত অর্ধশত

তালেবান-নিরাপত্তা বাহিনী সংঘর্ষে রক্তাক্ত আফগানিস্তান, নিহত অর্ধশত

ওমানে খুলে দেওয়া হল বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান
মালয়েশিয়া এ বছরের শেষ সময়ে পেতে পারে করো;নার টিকা: প্রধানমন্ত্রী মুহিউদ্দিন ইয়াসিন
বিমানবন্দরে এক নারীর ব্যাগেই মিলল ২০ কোটি টাকা!

তালেবানের সঙ্গে নিরাপত্তা বাহিনীর সংঘর্ষে ফের রক্তাক্ত হয়েছে আফগানিস্তান। বৃহস্পতিবার দেশটির তিনটি প্রদেশে রাতভর ধরে চলা সংঘর্ষে ৩১ তালেবান সদস্য নিহত হয়েছে। সংঘর্ষে মারা গেছেন নিরাপত্তা বাহিনীর ১৯ সদস্যও।

দেশটিকে এমন সময় এই সংঘাত হলো যখন আফগানিস্তানে দীর্ঘ ১৮ বছরের যুদ্ধের অবসান টানতে তালেবানের সঙ্গে দেশটির সরকার এবং যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধিরা শান্তি আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে।

নানগারহার প্রদেশে মুখপাত্র আতাউল্লাহ খোগিয়ানী জানান, নাগরহার প্রদেশের তিনটি জেলায় আফগান সরকার সমর্থিত বাহিনীর বেশ কয়েকটি নিরাপত্তা চৌকিতে দফায় দফায় হামলা চালায় তালেবানের সশস্ত্র সদস্যরা। উভয়পক্ষের পাল্টাপাল্টি হামলায় নিরাপত্তা বাহিনীর ১১ সদস্য ঘটনাস্থলেই মারা যান। এছাড়া সংঘর্ষে বিভিন্ন জায়গায় ৩১ তালেবান সদস্যও নিহত হন। আহত হয়েছেন উভয়পক্ষের আরও অনেক সদস্য।

সরকারি কর্মকর্তাদের পক্ষ থেকে তালেবান যোদ্ধাদের নিহত হওয়ার কথা জানানো হলেও তালেবানের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানানো হয়নি।

আফগানিস্তানের ভারপ্রাপ্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী আসাদুল্লাহ খালিদ বলেছেন, ‘আমাদের পক্ষ থেকে কোনো হামলা চালানো হয়নি। শত্রুরা হামলা অব্যাহত রেখেছে এবং বন্যা বইয়ে দিচ্ছে আফগান রক্তের।’

গত ফেব্রুয়ারিতে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে আফগান তালেবানের একটি চুক্তি সইয়ের অংশ এই আলোচনা। ওই চুক্তিতে যুক্তরাষ্ট্র ২০২১ সালের মে মাসের মধ্যে দেশটিতে থাকা সব বিদেশি সেনা ফিরিয়ে নেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। তবে আফগানিস্তানে মার্কিন প্রতিনিধি জালমেয় খলিলজাদ বলেছেন, যদিও এই আলোচনার মাধ্যমে দেশটিতে দীর্ঘদিনের এই যুদ্ধ শেষ হওয়ার আশা জেগেছে, তবে এখনও অনেক চ্যালেঞ্জ রয়ে গেছে।

COMMENTS

[gs-fb-comments]