কাতারকে অত্যাধুনিক কোন যু’দ্ধ’বিমান কিনতে দেবে না ইসরাইল!

কাতারকে অত্যাধুনিক কোন যু’দ্ধ’বিমান কিনতে দেবে না ইসরাইল!

এরদোয়ানকে ‘সৌদির আসনে’ বসাতে চান ইমরান খান ও শি জিনপিং
ইন্দোনেশিয়ার উপকূল থেকে ৩০০ রোহিঙ্গা উদ্ধার
কাশ্মীর ইস্যুর পরই ‘হাফিজ সাঈদ’কে মুক্তি দিলো পাকিস্তান

বিশ্ব জুড়ে করো;না ম;হামা;রীর কা;রনে সব কিছুই ছিল স্থগিত। এমনকি দেশে দেশে দ্বন্দ্ব এবং যু;দ্ধও ছিল ব;ন্ধ। তবে সম্প্রতি করোনা একটু দুর্বল হয়ে পড়ায় সবকিছু আবার ফিরছে আগের রুপে। আগের মতই সব দ্বিধা দ্বন্দ্ব আবার শুরু হয়েছে দেশের মাঝে।

কাতারের কাছে যুক্তরাষ্ট্রের অত্যাধুনিক যু;;দ্ধ;বিমান এফ-৩৫ বিক্রির বিরোধিতা করবে ইসরায়েল। ইসরায়েলি সেনা;বাহিনীর আঞ্চলিক শ্রেষ্ঠত্ব অক্ষু;ন্ন রাখার প্রয়োজনীয়তার কথা উল্লেখ করে একথা বলেছেন ইসরায়েলের গোয়েন্দা বিষয়ক মন্ত্রী।

সম্প্রতি বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এফ-৩৫ কিনতে ওয়াশিংটনের কাছে কাতারের আনুষ্ঠানিক আবেদন জানানোর খবর প্রকাশ পেয়েছে।

কাতারের সঙ্গে ইরানের ঘনিষ্ঠতা আছে, আর ইরানকে মধ্যপ্রাচ্যে নিজেদের সবচেয়ে বড় শত্রু মনে করে ইসরায়েল। তাই কাতারের হাতে অত্যাধুনিক যুদ্ধবিমান পৌঁছে ‍যাওয়া ঠেকাতে চায় ইসরায়েল।

এই বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে জবাবে ইসরায়েলের গোয়েন্দা বিষয়ক মন্ত্রী এলি কোহেন রোববার বলেন, ‘‘হ্যাঁ। ওই অঞ্চলের

নিরাপত্তা এবং ইসরায়েলের সেনাবাহিনীর শ্রেষ্ঠত্ব বজায় রাখা আমাদের কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কারণ আমাদের এই অঞ্চল এখনও সুইজারল্যান্ড হয়ে যায়নি।”

ইসরায়েল ও উপসাগরীয় আরব দেশগুলোর মধ্যে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার বিষয়ে গত অগাস্টে ওয়াশিংটন ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের মধ্যে একটি চুক্তি হয়েছে।

এই চুক্তির বাড়তি অংশ হিসেবে সংযুক্ত আরব আমিরাতকে এফ-৩৫ যুদ্ধবিমান কেনার অনুমতি দেওয়ার বিষয়টি বিবেচনা করতে রাজি হয়েছে ওয়াশিংটন। ইসরায়েল এফ-৩৫ যুদ্ধবিমান উন্নততর করার কাজে অংশ নিয়েছে এবং যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে ওই বিমান কিনেছে।

দেশটি সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নেও আগ্রহী এবং ওই অঞ্চলে ইরানের বাড়তে থাকা প্রভাবের হুমকি মোকাবেলায় সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে কাজও করতে চায়।

কিন্তু ওই অঞ্চলের অন্য কোনও দেশের হাতে অত্যাধুনিক সমরাস্ত্র পড়া নিয়ে ইসরায়েলের স্পষ্ট আপত্তি আছে। কারণ, তা হলে ওই অঞ্চলে নিজেদের শ্রেষ্ঠত্ব ক্ষুন্ন হওয়ার আশঙ্কা আছে তাদের।

অন্যদিকে, কাতার ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক বজায় রেখেছে। ফিলিস্তিনের ইসলামপন্থি দল হামাস এর সঙ্গেও তাদের মিত্রতা রয়েছে। হামাসকে প্রচুর অর্থ সহায়তা করে কাতার।

COMMENTS

[gs-fb-comments]