চালক প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে যেতেই রিকশা উধাও, পরে উদ্ধার

চালক প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে যেতেই রিকশা উধাও, পরে উদ্ধার

কনকনে শীতে রাস্তার পাশে পড়ে ছিল নবজাতকটি, উদ্ধারের পর হাসপাতালে
নিজস্ব একাডেমি তৈরি করছে বাফুফে
যুবরাজ সালমান-নেতানিয়াহুর গোপন বৈঠক অস্বীকার সৌদির

অটোরিকশায় যাত্রী রেখে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে গিয়েছিলেন চালক। এসে দেখেন অটোরিকশায় যাত্রীবেশে থাকা অজ্ঞাত তিন যাত্রী রিকশাটি নিয়ে উধাও। পরে চুরি যাওয়া সেই অটোরিকশাসহ এক ব্যক্তিকে গ্রে’ফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (২৯ জুন) ভোরে চন্দ্রিমা থানার মেহেরচন্ডী এলাকার চারুকারু কলা বিভাগের সামনে থেকে ওই ব্যক্তিকে গ্রেফ’তার করা হয়।

গ্রে’ফতার ব্যক্তির নাম মো. রিফাত শেখ শিহাব (২০)। তিনি নগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানার পঞ্চবটি খড়বনা এলাকার মো. রফিক শেখের ছেলে।

রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের (আরএমপি) অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার ও নগর পুলিশের মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দস বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, ওই অটোচালকের নাম মো. শামীম। তিনি মতিহার থানাধীন বাজে কাজলা এলাকার মো. আব্দুল হান্নানের ছেলে। চুরি যাওয়া রিকশাটি উদ্ধারের পর তাকে ফেরত দেয়া হয়।

ঘটনার বিবরণে নগর পুলিশের মুখপাত্র জানান, সোমবার (২৮ জুন) বিকেল ৩টার দিকে নগরীর তালাইমারি মোড় থেকে অজ্ঞাতনামা তিনজন যাত্রীকে উঠিয়ে নতুন বুধপাড়ার উদ্দেশে রওনা হন শামীম। পথিমধ্যে রাজশাহী

বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) গণকবরের দক্ষিণে সফেদা বাগানের সামনে চালক প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে অটোরিকশা থামিয়ে তালাবদ্ধ করেন। প্রকৃতির ডাকে যাওয়ার সময় চাবিটি তার সঙ্গে নিয়ে সফেদা বাগানের ভেতরে যান। সেখান

থেকে এসে দেখেন তার অটোরিকশাটি যাত্রীবেশে থাকা অজ্ঞাতনামা সেই তিন যুবক তালা ভেঙে চুরি করে নিয়ে গেছেন। পরে মতিহার থানায় গিয়ে একটি চুরির মামলা করেন তিনি।

পরবর্তীতে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা উপপরিদর্শক (এসআই) মো. শাহাবুল ইসলাম ও তার টিম চুরি যাওয়া অটোরিকশাটি উদ্ধারসহ চোরদের গ্রেফ’তারে ব্যাপক তদন্ত শুরু করেন। তদন্তে চোরের সন্ধান পাওয়ায় মঙ্গলবার ভোররাতে অভিযান চালিয়ে রিফাত শেখ শিহাব নামের এক যুবককে গ্রে’ফতার করা হয় এবং চুরি যাওয়া অটোরিকশাটি উদ্ধার করা হয়।

আরএমপি অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার গোলাম রুহুল কুদ্দস আরও জানান, আটক যুবককে চুরির অপরাধে দুপুরে আদালতের মাধ্যমে কারাগের পাঠানো হয়েছে। বাকি আসামিদের গ্রেফ’তারে অভিযান অব্যাহত র

COMMENTS

[gs-fb-comments]