প্রিয় মানুষগুলো চলে যাচ্ছে, এই বুঝি আমারও ডাক পড়ে গেল : বাপ্পারাজ

প্রিয় মানুষগুলো চলে যাচ্ছে, এই বুঝি আমারও ডাক পড়ে গেল : বাপ্পারাজ

সিলেটবাসীকে চমকে দিচ্ছে ‘হিজড়া টিভি’
আজ দশ দশ বিশ!
নোটিশ প্রত্যাহার করে জনস্বাস্থ্য পরিচালকের দুঃখ প্রকাশ

চিত্রনায়ক বাপ্পারাজ। এক সময়ের তুমুল জনপ্রিয় এই অভিনেতা চিন্তিত বিশ্বের মহামারি নিয়ে। ক্রমেই পৃথিবীর ধূসর হয়ে আসায় শঙ্কিত। শঙ্কিত চলমান এই মৃ;ত্যুর মিছিল নিয়ে। আশপেয়াশের পরিচিতদের মৃ;ত্যু ক্রমে পরিবে;শকে ভীতিকর তুলছে। ঠিক এমনই সময়কে মৃ;ত্যুকে খুব সহজভাবে চিন্তা করলেন বাপ্পারাজ।

চলমান করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে গোটা বিশ্ব থমকে গেছে। থমকে গেছে বাংলাদেশ। দেশের সকল সেক্টরের মানুষের মতো শোবিজ অঙ্গনের অনেকেও করোনার ভয়াল থাবা থেকে রেহাই পাচ্ছেন না।

যাদের মধ্যে অনেকেই কাছের মানুষ। পরিচিত মুখ গুলো এক এক করে হারিয়ে যাচ্ছে। ক্রমশ হারিয়ে যাওয়া মুখকে মনে করে বুকের ভেতরটা হাহাকার করে উঠছে।

নিজের ফেসবুকে বাপ্পারাজ লিখেছেন, প্রিয় মানুষগুলো এক এক করে চলে যাচ্ছে, গোচরে, অগোচরে। নীরবে। একেকটা খবর শুনি আর মনে হয়, এই বুঝি আমারও ডাক পড়ে গেল। মনকে বোঝাই, এটাই জীবন, এটাই বাস্তবতা, চলে যেতেই হবে, নেই এর বিকল্প। শুধু অপেক্ষা সেই বিদায় ঘণ্টা বাজার!’

১৯৮৬ সালে রাজ্জাকের পরিচালনায় ‘চাঁপাডাঙার বউ’ ছবি মাধ্যমে সিনেমায় আসেন বাপ্পারাজ। তার বাবা রাজ্জাক বাংলাদেশ চলচ্চিত্রের একজন কিংবদন্তি অভিনেতা ছিলেন।

বাপ্পারাজ বাংলা চলচ্চিত্রের বিখ্যাত অভিনেতা নায়ক রাজ রাজ্জাকের ও রাজলক্ষ্ণীর দ্বিতীয় সন্তান। তার জন্ম ১৯৬৮ সালে ঢাকায়৷ তার আসল নাম রেজাউল করিম বাপ্পারাজ।

COMMENTS

[gs-fb-comments]