রাতের খাবার রোজ দেরিতে খেলে প্রস্টেট ও স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ে: গবেষণা

রাতের খাবার রোজ দেরিতে খেলে প্রস্টেট ও স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি বাড়ে: গবেষণা

লটকনে রয়েছে যত রকমের স্বাস্থ্য উপকারিতা
শিক্ষকের সঙ্গে বিয়ের পিঁড়িতে মেয়র কন্যা ডা. অর্ণা জামান
মাদকবিরোধী আয়োজনে পপি ফেরদৌস ও অপু বিশ্বাস

রাতের খাবারে প্রতিদিন দেরিতে খেলে বাড়তে পারে প্রস্টেট ও স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি।

সময়মতো খাবার না খেলে তা স্বাস্থ্যের জন্য মোটেও ভালো নয়। মোটা বা রোগা যাওয়া, ব্লাড প্রেশার, ব্লাড সুগারের হঠাৎ ওঠানামা সবই হয় থাকে খাবারের কারণে।

ইন্টারন্যাশনাল জার্নাল অব ক্যান্সার প্রকাশিত একটি নতুন গবেষণায় দাবি করা হয়েছে যে, সময়মতো রাতের খাবার না খেলে স্তন ক্যান্সার আর প্রস্টেট ক্যান্সারের ঝুঁকি বেড়ে যায়।

গবেষণায় ৬২১ জন প্রস্টেট ও ১২০৫ স্তন ক্যান্সারের রোগীর ওপর পরীক্ষাও চালানো হয়। যার মধ্যে পুরুষের সংখ্যা ছিল ৮৭২ জন এবং নারীর সংখ্যা ১৩২১ জন।

স্পেনের গবেষকদের একটি দল এ গবেষণাটি পরিচালনা করেন। গবেষণায় যারা অংশ নেন, তাদের ঘুমের সময়সূচি এবং রাতের খাবার সময়সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ করা হয়।

গবেষণায় আরও দেখা হয়, পরিবারে কারও ক্যান্সার আছে কিনা, অংশগ্রহণকারীদের আর্থ-সামাজিক অবস্থান এবং তাদের পরিবেশে ক্যান্সার হতে পারার মতো কোনো প্রভাব রয়েছে কিনা।

গবেষণার ফল দেখা যায়, দেরি করে রাতের খাবার খেলে সার্বিকভাবেই প্রস্টেট ও স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি বেড়ে যায়।

প্রোস্টেট ক্যান্সারের ক্ষেত্রে গবেষণায় দেখা গেছে, রাত ৯টার আগে যারা রাতের খাবার খেয়ে নেন বা খাবার ২ ঘণ্টা পরে ঘুমোন তাদের প্রস্টেট ক্যান্সার সৃষ্টির ঝুঁকি ২৬ শতাংশ কম ছিল।

একইভাবে প্রাথমিক স্তরের নারীদের যারা রাত ১০টার আগে ডিনার সেরে নেন, তাদের মধ্যে স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকি ১৬ শতাংশ কম।

গবেষকরা জানান, দেরি করে খাবার খেলে এবং খাবার পরেই ঘুমিয়ে পড়লে শরীরের সার্কাডিয়ান ছন্দ ব্যাহত হয়। ফলে বিভিন্ন জৈব প্রক্রিয়া যেমন ঘুম, হরমোনের কার্যকারিতা, শক্তিমাত্রা এবং শরীরের তাপমাত্রা ভারসাম্য হারায়।

ফলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও কমে যাওয়া ও টিউমার হওয়ার প্রবণতা বেড়ে যায়।

COMMENTS

[gs-fb-comments]