সাশ্রয়ী দামে জনপ্রিয় ৫ ডিএসএলআর ক্যামেরা

সাশ্রয়ী দামে জনপ্রিয় ৫ ডিএসএলআর ক্যামেরা

টাটার বৈদ্যুতিক গাড়ি এক চার্জে ৩০০ কিলোমিটার
কয়েক বছরে উষ্ণতায় পৃথিবী হবে আগুনের গোলায়
ইন্টারনেট-ক্যাবল টিভি বন্ধের সিদ্ধান্ত স্থগিত

সঠিকভাবে ফটোগ্রাফি শিল্পের সঙ্গে পরিচিত হওয়ার জন্য একজন ফটোগ্রাফারের কাছে ডিএসএলআর ক্যামেরা থাকা ভীষণই জরুরি। কিন্তু এই গোত্রের ক্যামেরার দাম অনেক হওয়ায় ইচ্ছা থাকলেও সবাই কিনে উঠতে পারেন না। দামি লেন্স এবং অনেক ফিচার থাকার জন্য ডিএসএলআর ক্যামেরা কেনার খরচ বেশি। তবে মধ্যবিত্তর পকেটে অনুযায়ী ৫০ হাজার টাকার কমেও বেশ ভালো কিছু ডিএসএলআর বাজারে রয়েছে। আসুন জেনে নেওয়া যাক তেমনই ৫টি ক্যামেরার বিষয়ে, যা দামেও অনেকটা কম, পাশাপাশি কাজ দেয় ভালো।

নিকন ডি৫৬০০

২৩.৫x১৫.৬ মিমি, ২৪ এমপি, এপিএস-সিসিএমওএস সেন্সর লাগানো নিকন ডি৫৬০০ ক্যামেরাটি ৩৯ অটো ফোকাস পয়েন্ট সমৃদ্ধ। ক্যামেরাটিতে টাচস্ক্রিনের সুবিধা রয়েছে। এর ব্যাটারি লাইফও বেশ ভালো। ওয়াই-ফাই, এনএফএস, মাইক্রোপোস্ট সুবিধাযুক্ত এই নিকন ডি৫৬০০ ক্যামেরার দাম ৫০ হাজারের নিচে।

ক্যানন ইওএস ২০০ডি

যারা আরেকটু বাজেট বাড়াতে পারবেন, তাদের জন্য ক্যানন ইওএস ২০০ডি ক্যামেরাটি একদম ঠিক। এই ক্যামেরাটিতে সেলফিও খুব ভালো তোলা যায়। রিয়ার স্ক্রিন যেকোনো অ্যাঙ্গেলে নিয়ে আসা যায়। ক্যামেরাটিতে ডিআইজিআইসি ৮ প্রসেসর রয়েছে। ক্যামেরাটির দাম ৫০ হাজারের নিচে।

সনি আলফা এ৬৮

সনি আলফা এ৬৮ ক্যামেরাটিতে ২৪.২ মেগাপিক্সেল এক্সমোর সিএমওএস সেন্সর রয়েছে। বিআইওএনজেড এক্স প্রসেসর সম্বলিত এই ক্যামেরাটি ছবি তোলার ক্ষেত্রে বেশ ভালো। সনি আলফা এ৬৮ ক্যামেরাটিতে ২ডি, ৩ডি এবং ৪ডি সুবিধাও সাপোর্ট করে।

নিকন ডি৩৫০০

নতুন যারা ফটোগ্রাফি করতে আসছেন, তাদের জন্য এই ক্যামেরাটি সেরা। ডি৩৪০০-র আপগ্রেডেড ভার্সন হল এই ক্যামেরা। এই ক্যামেরায় টাচস্ক্রিনের সুবিধা নেই। কিন্তু ব্লুটুথের সুবিধা এতে রয়েছে।

ক্যানন ইওএস ১৫০০ডি

ক্যানন ইওএস ১৫০০ডি ক্যামেরাটিও নতুন যারা ফটোগ্রাফি করতে আসছেন, তাঁদের পক্ষে বেশ ভালো। ১৮ এমপি থেকে ২৪.১ এমপি সেন্সরের সুবিধাযুক্ত ক্যানন ইওএস ১৫০০ডি ক্যামেরায় ৩ ইঞ্চি ভ্যারি অ্যাঙ্গল টাচস্ক্রিনের সুবিধাও আছে। এই ক্যামেরার ব্যাটারি লাইফও মন্দ নয়।

COMMENTS

[gs-fb-comments]