শেষ হল শ্রীলঙ্কার ব্যাটিং, দেখেনিন কত রানের টার্গেট দিলো টাইগারদের

শেষ হল শ্রীলঙ্কার ব্যাটিং, দেখেনিন কত রানের টার্গেট দিলো টাইগারদের

ব্যাটিংয়ে ঝড় তুলেছে বাংলাদেশ, দেখুন সর্বশেষ স্কোর
ডেঙ্গু জ্বর কেড়ে নিলো ক্রিকেটার ইমরুলের স্বপ্ন
ম্যারাডোনার শোকে স্তব্ধ সাকিব

একমাত্র প্রস্তুতি ম্যাচে জয়ের জন্য সফরকারী বাংলাদেশকেবড় রানের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে দিয়েছে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা বোর্ড প্রেসিডেন্টস একাদশ। স্বাগতিকদের পক্ষে সর্বোচ্চ ৮৬ রান এসেছে দাসুন শানাকার ব্যাট থেকে। ৬ চার ও ৬ ছক্কায় এ রান করেছেন তিনি। তার পাশাপাশি দলকে বড় সংগ্রহ এনে দিতে বড় ভূমিকা পালন করেছে শেহান জয়াসুরিয়ার ৫৬ রানের ইনিংস। প্রস্তুতি ম্যাচে উইকেটের দেখা পেয়েছেন তাসকিন আহমেদ।

কলম্বোর পি সারা ওভালে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের প্রথম ওভারেই উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। রুবেলের করা ইনিংসের তৃতীয় বলে লেগ-বিফোরের ফাঁদে পড়ে সাজঘরে ফিরেছেন স্বাগতিক দলের অধিনায়ক নিরোশান ডিকভেলা। রানের খাতা খোলার আগেই সাজঘরে ফিরেন তিনি।

এরপর ক্রিজে এসে থিতু হতে পারেননি ওশাদা ফার্নান্দোও। রুবেলের বলে মোসাদ্দেকের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফিরেন তিনি। ২ রান করে ফার্নান্দো বিদায় নিলে দলীয় ২৮ রানে দ্বিতীয় উইকেটের পতন ঘটে স্বাগতিকদের। এরপর সফরকারীরা আবারও মাতে উইকেট প্রাপ্তির আনন্দে। এ যাত্রায় দলকে সাফল্য এনে দেন তাসকিন। ২৬ রান করা গুনাথিলাকাকে সাজঘরে ফেরান তিনি।

এর ফলে দলীয় ৩২ রানে ৩ উইকেটের পতন ঘটে স্বাগতিক লঙ্কানদের। এরপর স্বাগতিকদের হাল ধরেন ভানুকা ও জয়াসুরিয়া। চতুর্থ উইকেট জুটিতে তারা যোগ করেন মূল্যবান ৮৪ রান। ইনিংসের ২৬তম ওভারে প্রথমবারের মতো বল করতে এসে দলকে ব্রেকথ্রু এনে দেন তিনি। এর কিছুক্ষণ পর দলকে আবারও উইকেট প্রাপ্তির উচ্ছ্বাসে মাতান মুস্তাফিজুর রহমান।

৭ রান করা অ্যাঞ্জেলো পেরেরাকে মুস্তাফিজ আউট করলে দলীয় ১২৭ রানে পঞ্চম উইকেটের পতন ঘটে স্বাগতিকদের। প্রাথমিক বিপর্যয়ের পর অর্ধশতক হাঁকিয়ে তা সামাল দিলেও এ যাত্রায় ব্যর্থ হন শেহান জয়াসুরিয়া। ব্যক্তিগত ৫৬ রানে সৌম্যর দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হয়ে সাজঘরে ফিরেন তিনি। এতে ১৪৬ রানে ষষ্ঠ উইকেট হারায় স্বাগতিকরা। এরপর সপ্তম উইকেট জুটিতে প্রতিরোধ গড়েন দাসুন শানাকা ও ডে সিলভা।

সপ্তম উইকেট জুটিতে তারা যোগ করেন ৪৯ রান। ডি সিলভা ২৮ করে ফিরলেও দলের দায়িত্ব নিজ কাঁধে তুলে নিয়ে এগিয়ে যেতে থাকেন শানাকা। শেষদিকে তার আক্রমণাত্বক ৬৩ বলের ৮৬ রানের ইনিংসে চড়ে ৫০ ওভারে স্কোরবোর্ডে ৮ উইকেটে ২৮২ রান করতে সক্ষম হয় স্বাগতিক এসএলবিপি।

সফরকারী বোলারদের মধ্যে সর্বোচ্চ দুটি করে উইকেট নিয়েছেন রুবেল হোসেন ও সৌম্য সরকার। তাছাড়া তাসকিন, মুস্তাফিজ একটি করে উইকেট লাভ করেন। বাকি দুটি উইকেট আসে তামিম ইকবালের দুই রান-আউট থেকে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর- এসএলবিপি একাদশ: ৫০ ওভারে ২৮২/৮ শানাকা ৮৬*, জয়াসুরিয়া ৫৬;

বোলিং= রুবেল ৭-০-৩১-২, তাসকিন ৮-০-৫৭-১, মুস্তাফিজ ৭-০-২৯-১, মোসাদ্দেক ৬-১-২৫-০, মিরাজ ৪-০-২৫-০, রিয়াদ ৩-০-১৫-০, সৌম্য ৬-০-২৯-২, তাইজুল ৬-০-৪২-০।

COMMENTS

[gs-fb-comments]