ম্যানসিটি শিবিরে করোনার হানা

ম্যানসিটি শিবিরে করোনার হানা

অস্ট্রেলিয়ার প্রথম মুসলিম অধিনায়ক হলেন উসমান খাজা
ফুটবলাররা আক্রান্ত হলেও রোনালদোদের লিগ থামবে না
ইনিংস ও ১০৬ রানে জিতল বাংলাদেশ

ফুটবল সার্কিটে করোনার দাপট চলছেই। এবার মারণ ভাইরাস হানা দিল ম্যানচেস্টার সিটির সংসারে। করোনা আক্রান্ত হলেন ক্লাবের আলিজিরিয়ান উইঙ্গার রিয়াদ মাহরেজ এবং ফরাসি সেন্টার-ব্যাক এমেরিক ল্যাপোর্তে। সোমবার ক্লাবের দুই ফুটবলারের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর জানিয়েছে সিটি কর্তৃপক্ষ। দুই ফুটবলারই উপসর্গহীন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন ক্লাব।

স্কাই ব্লুজ কর্তৃপক্ষ তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড রিয়াদ মাহরেজ এবং এমেরিক ল্যাপোর্তের শরীরে কোভিড-১৯ পজিটিভ হওয়ার খবরটি নিশ্চিত করছে। দুই ফুটবলার আপাতত সেলফ-আইসোলেশনে পর্যবেক্ষণে রয়েছেন। প্রিমিয়ার লিগ এবং ব্রিটেন সরকারের প্রোটোকল মেনেই কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে তাদের। দু’জনের শরীরে ভাইরাসের কোনও উপসর্গও নেই। ক্লাবের প্রত্যেকে রিয়াদ এবং এমেরিকের দ্রুত সুস্থতা কামনা করছে যাতে তারা সুস্থ হয়ে মৌসুম শুরুর আগে অনুশীলনে যোগ দিতে পারে।’

তবে এই দুই ফুটবলারকে যেহেতু দু’সপ্তাহের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে তাই আগামী ২১ সেপ্টেম্বর উলভসের বিপক্ষে ল্যাপোর্তে, মাহরেজের মাঠে নামার বিষয়টি ঘোর সংশয়ে। উল্লেখ্য, স্পেনে ছুটি কাটিয়ে সদ্য ইংল্যান্ডে ফিরেছেন কোচ পেপ গুয়ার্দিওলাও। তিনিও আপাতত দু’সপ্তাহের কোয়ারেন্টাইনে। এছাড়াও আন্তর্জাতিক বিরতি কাটিয়ে ম্যাঞ্চেস্টার শিবিরে ধীরে-ধীরে যোগ দেবেন রহিম স্টার্লিং, ফিল ফডেন, কাইল ওয়াকারের মত তারকারা। পেপের পরিবর্তে সহকারী কোচ জুয়ান ম্যানুয়েলের তত্ত্বাবধানেই চলছে সিটির প্রাক-মরশুম প্রস্তুতি।

সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন দেশের প্রথম সারির বিভিন্ন ক্লাব থেকে একাধিক তারকা ফুটবলারের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর এসেছে। তালিকায় যেমন রয়েছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের পল পোগবা। তেমনি রয়েছেন প্যারিস সা জাঁ’র নেইমার দি স্যান্তোস, অ্যাঞ্জেল দি মারিয়া। গত মঙ্গলবার তালিকা দীর্ঘ করে ক্লাবের স্প্যানিশ স্ট্রাইকার দিয়েগো কোস্তার করোনা আক্রান্ত হওয়ার কথা শুনিয়েছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ।

উল্লেখ্য, করোনা আক্রান্ত হওয়ার কারণে নেশনস লিগের প্রথম দু’ম্যাচে মাঠে নামা থেকে বঞ্চিত হয়েছেন ম্যান ইউ’য়ের তারকা মিডিও পোগবা। প্রাথমিকভাবে স্কোয়াডে থাকলেও উপায়ান্তর না দেখে পরে তাকে নেশনস লিগের প্রথম দু’ম্যাচের স্কোয়াড থেকে বাদ দিতে বাধ্য হন দিদিয়ের দেশঁ।

COMMENTS

[gs-fb-comments]