শীতে সুস্বাদু-পুষ্টিকর দই ইলিশ ভাপা

শীতে সুস্বাদু-পুষ্টিকর দই ইলিশ ভাপা

তালের অসাধারণ স্বাস্থ্য উপকারিতা
গরমে চুলপড়া কমাতে করণীয়
পুষ্টিগুণে ভরপুর পালংশাকের উপকারিতা জানুন

শীতকালে এবার ইলিশ মাছ বাজারে প্রচুর। উপমহাদেশের ২৬ কোটি লোক ইলিশ খায়, তবে বাংলাদেশেই এই মাছ ধরা পড়ে সবচেয়ে বেশি। দই ইলিশ ভাপা, সর্ষে ইলিশ, ইলিশ পাতুরি, ইলিশের টক, ভাজা ইলিশ, ইলিশের ডিম আর কত কী যে বাঙালি ইলিশ দিয়ে রাঁধতে পারে তার তালিকা শেষ হবে না। কিন্তু আপনি জানেন কি যে ইলিশ মাছ যত সুস্বাদু, ততটাই পুষ্টিকর।

বিশেষজ্ঞরা ইলিশের নানাবিধ রোগ প্রতিরোধ গুণের কথা জানাচ্ছেন। রয়েছে প্রচুর প্রোটিন, এবং জিঙ্ক, ক্রোমিয়াম, সেলেনিয়ামের মতো খনিজ৷ প্রতি ১০০ গ্রাম ইলিশ মাছে রয়েছে ২১.৮ গ্রাম প্রোটিন, ২৪ মিলিগ্রাম ভিটামিন সি, ১৮০ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম, ৩.৩৯ গ্রাম শর্করা, ২.২ গ্রাম খনিজ ও ১৯.৪ গ্রাম চর্বি।

এ ছাড়া বিভিন্ন খনিজ, খনিজ লবণ, আয়োডিন ও লিপিড রয়েছে। শরীর গঠন ও স্বাস্থ্য পুনরুদ্ধারে ইলিশ মাছ প্রোটিন ও অত্যাবশ্যকীয় অ্যামিনো এসিড সরবরাহ করে। ইলিশে রয়েছে ভিটামিন এ এবং ডি। ভিটামিন এ রাতকানা রোগ প্রতিরোধ করে এবং ডি শিশুদের রিকেট রোগ থেকে রক্ষা করে। খনিজ, বিশেষ করে ফসফরাস দাঁত ও লৌহ স্বাভাবিক শরীর বৃদ্ধি এবং মানসিক বিকাশের জন্য খুবই প্রয়োজনীয় উপাদান।

সম্প্রতি ইংল্যান্ডে ফুড স্ট্যান্ডার্ডস এজেন্সির বিজ্ঞানীরা গবেষণায় প্রমাণ পেয়েছেন, ভ্রূণের উপযুক্ত বৃদ্ধির ক্ষেত্রে ইলিশের তেল অত্যন্ত উপকারী। হৃদরোগ কমানোর ক্ষেত্রে এ তেলের ক্ষমতা অপরিসীম। ইলিশ মাছের জিঙ্ক ডায়াবেটিস রোগীদের পক্ষে খুব ভালো৷ সেলেনিয়াম আবার অ্যান্টি অক্সিডেন্টের কাজ করে৷ এছাড়াও রয়েছে ক্যালসিয়াম আর আয়রণের পুষ্টিগুণও৷
এবার ইলিশ দিয়ে বানিয়ে ফেলুন নিত্য নতুন মুখরোচক পদ দই ইলিশ ভাপা। খুব কম সময়ে দই ইলিশ ভাপা বানানো যায়। এখন জেনে নেয়া যাক কীভাবে বানাবেন দই ইলিশ ভাঁপা।

উপকরণ
ইলিশ মাছ: ৪ টুকরো
কাঁচা মরিচ: ৪ থেকে ৬ টি
টক দই: ২০০ গ্রাম
সর্ষে বাটা: পরিমাণ মতো
হলুদ গুঁড়া: পরিমাণ মতো
লবন: পরিমাণ মতো
সরিষার তেল: পরিমাণ মতো

প্রণালী
প্রথমে মাছের টুকরোগুলোকে অল্প পানি দিয়ে হালকা করে পরিষ্কার করে নিন। এবার টক দইয়ের মধ্যে সামান্য চিনি দিয়ে দইটিকে ভালো করে ফেটিয়ে নিন। একটি পাত্রে ফেটানো দই, পরিমাণ মতো সরিষা বাটা, লবণ, হলুদ ও তেল দিয়ে ভালো করে মিশ্রণ বানিয়ে নিন। ইলিশ মাছ এই মিশ্রণটি দিয়ে ভালো করে ম্যারিনেট করে নিন। ১০ মিনিট ম্যারিনেট করার পর একটি স্টিলের বা লোহার বাটিতে অল্প করে তেল মাখিয়ে নিয়ে ম্যারিনেট করা মাছগুলো রাখুন। এবার তাতে কাঁচামরিচ ৪ থেকে ৫ টি চিরে রেখে দিন

এবার একটি পাত্র নিয়ে তাতে কিছুটা পানি ঢালুন। এমন একটি পাত্র নিন যাতে ওই ইলিশ মাছ সমেত বাটিটি পানির মধ্যে বসানো যায়। এবার ভালো করে ঢেকে তার ওপর কিছু ভারী জিনিস চাপা দিয়ে দিন যাতে পানির ধাক্কায় সেটি পরে না যা যায়। এবার বাটি সমেত পানি ভরা পাত্রটি চুলায় বসিয়ে দিন। চুলার আঁচ কমিয়ে দিন। ১৫ থেকে ২০ মিনিট পর চুলা বন্ধ করে দিন। এবার বাটিটি পানি ভরা পাত্র থেকে সরিয়ে নিন। আপনার দই ইলিশ ভাপা তৈরী। গরম গরম ভাতের সাথে পরিবেশন করুন।

COMMENTS

[gs-fb-comments]