ইলিশের কাচ্চি বিরিয়ানি রান্নার সহজ রেসিপি

ইলিশের কাচ্চি বিরিয়ানি রান্নার সহজ রেসিপি

চুলের যত্নে যা করবেন
মধু না গুড় , কোনটা বেশি উপকারী?
প্রতিদিন একটি আপেল প্রতিরোধ করবে যেসব রোগ

বর্ষাকালে বাঙালি রসনা মেটায় ইলিশের নানা পদ দিয়ে। এর মধ্যে সুস্বাদু একটি পদ ইলিশ মাছের কাচ্চি বিরিয়ানি। ইলিশের কাচ্চি বিরিয়ানি নামটার মধ্যেই কেমন এক ধরনের সুবাস পাওয়া যায়। খেতেও যেমন দেখতেও মনোলোভা। জেনে নিন ইলিশ মাছের কাচ্চি বিরিয়ানি তৈরির সহজ রেসিপি।

উপকরণ

ইলিশ: ১ টি (৮ পিস)

টক দই: ৩/৪ কাপ

পেঁয়াজ বেরেস্তা: ১/২কাপ

লবণ: স্বাদমত

আদা বাটা: ১ চা চামচ

লাল মরিচের গুঁড়া: ২ চা চামচ

কাচামরিচ ফালি: ৫-৪পিস

চিনি: ১চা চামচ

গরম মশলা একসাথে গুঁড়া/বাটা: ১চা চামচ

সরিষার তেল: ১/৪ কাপ

ঘি: ২ টেবিল চামচ

জর্দ্দার/ জাফরান রং: ১/৪চা চামচ

মাছ পরিষ্কার করে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। মাছ বাদে সব উপকরণ একসাথে ব্লেন্ড করে মাছের সাথে মিশিয়ে কমপক্ষে ১ ঘন্টা মেরিনেড করে রাখুন। একটি বড় প্যানে মেরিনেড করা মাছ বিছিয়ে রাখুন।

চাল প্রস্তুত প্রণালি

পোলাউ বা বাসমতি চাল: ৪কাপ

আদার রস: ১ টেবিল চামচ

দারুচিনি: ২ টুকরা,

এলাচ: ৩ টি,

তেজপাতা: ২ টি,

শাহি জিরা: ১ চা চামচ,

কাচা মরিচ: ৫ টি

লবণ: স্বাদমত

গরম ফুটন্ত পানি: ৭কাপ

চাল ধুয়ে পানি ঝড়িয়ে নিন। একটি প্যানে তেল গরম করে সব মশলা দিয়ে চাল দিয়ে ২ মিনিট ভাজুন। পানি চালে দিয়ে ভাল করে নেড়ে দিন। লবণ দেখুন। কয়েকবার ফুটে উঠলে আর চাল পানির সমান হলে, ভাল করে নেড়ে ঢাকনা দিয়ে চুলার তাপ একদম কমিয়ে দিন। ১৮ মিনিট এভাবে রাখুন। ১৮ মিনিট পর চুলা বন্ধ করুন। ঢাকনা খুলে ভাত নেড়ে দিন।

বিরিয়ানী প্রস্তুত প্রণালি

পেঁয়াজ বেরেস্তা: ১/২কাপ

গুঁড়াদুধ: ১/৪কাপ

ঘি: ২ টেবিল চামচ

জর্দ্দার রং: সামান্য (১/২ কাপ দুধে ভিজানো)

মাছ বিছানো হাড়িতে মাছের উপর অর্ধেক বেরেস্তা, দুঁড়াদুধ ছিটিয়ে দিন। তার উপর অর্ধেক ভাত দিন। আবার বাকি বেরেস্তা, গুঁড়াদুধ দিয়ে ভাত দিন। উপরে ঘি ও দুধের রঙ ছিটিয়ে ভাল করে ঢাকনা দিয়ে দিন। আটার দলা দিয়ে ঢাকনার চারপাশ মুড়ে দিন যাতে ভাপ না বের হতে পারে। ৫ মিনিট মাঝারি আঁচে রান্না করুন। তারপর অল্প আচে দমে রাখুন ৩০ মিনিট। তাওয়া গরম করে তার উপর আরো ২০ মিনিট রাখতে পারেন। চুলা বন্ধ করে বিরিয়ানির পাত্রটি পরিবেশনের পাত্রে উল্টিয়ে ঢালুন। গরম গরম পরিবেশন করুন মজাদার ইলিশের কাচ্চি বিরিয়ানি।

COMMENTS

[gs-fb-comments]