বিরল উল্কাবৃষ্টি দেখা যাবে বছরের শুরুতেই

বিরল উল্কাবৃষ্টি দেখা যাবে বছরের শুরুতেই

কক্সবাজারে আকাশে ভেসে রেস্টুরেন্টে খাবার খাবে পর্যটকরা
দক্ষিণ এশিয়ায় প্রথম ই-পাসপোর্টের জন্য ই-গেট চালু করলো বাংলাদেশ
ক্লিন ফাইভ!

করোনা বিপর্যয় নিয়ে শুরু হলেও নতুন বছরের শুরুতেই একটি বিরল ঘটনা ঘটতে যাচ্ছে। সেটা হলো ২০২১ সালের শুরুতেই বিরল চতুষ্কোণ উল্কাবৃষ্টির সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।

মার্কিন মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র নাসা জানিয়েছে, খুব শিগগিরই পৃথিবীর আকাশে এই বিরল উল্কাবৃষ্টি দেখা যাবে। খবর ডেইলি মেইল, সিবিএস নিউজ।ডেইলি মেইল এক প্রতিবেদনে বিজ্ঞানীদের বরাতে জানিয়েছে, এই ধরনের উল্কা সাধারণত ধূমকেতুর কণা ও গ্রহাণুর ভাঙা অংশ থেকে হয়।

পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে যখন সেটা প্রবেশ করে তখনই আগুন ধরে যায় এবং আকাশে উজ্জ্বল কণার মতো প্রতিফলিত হয়। একইসঙ্গে দীর্ঘ সময় ধরে তা আকাশে জ্বলতে থাকে। যখন প্রথম বিজ্ঞানীরা উল্কাবৃষ্টি দেখেছিলেন তারা এর নাম দিয়েছিলেন ‘চতুষ্কোণ উল্কাবৃষ্টি’।

বিজ্ঞানীরা প্রথমবার উল্কাবৃষ্টির দেখা পেয়েছিলেন ১৮২৫ সালে। সেই সময়ই প্রথম এই উল্কাবৃষ্টির আবিষ্কার হয়। মার্কিন মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র নাসা বলছে, ২০২১ সালে বায়ুমণ্ডলের অনেকটা জুড়ে দেখা যাবে উল্কাবৃষ্টি। সাধারণত জানুয়ারির শুরুতেই এই উল্কাবৃষ্টি হয়ে থাকে।

বিজ্ঞানীরা দাবি করছেন, পৃথিবীর উত্তর গোলার্ধের আকাশে এই উল্কাবৃষ্টি দেখা যাবে। উত্তর গোলার্ধের মধ্যে বাংলাদেশও রয়েছে। যদি ভাগ্য ভাল থাকে, তাহলে বাংলাদেশ-ভারতসহ ভারতীয় উপমহাদেশের আকাশেও এই উল্কাবৃষ্টি দেখা যাবে।

সিবিএস নিউজ নাসার বরাতে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ২ থেকে ৩ জানুয়ারি ভোরের আকাশে দু’শটি উল্কাবৃষ্টি দেখা যাবে। সেই সময় ৩০ মিনিট অন্ধকারে চোখ রাখলেই এই বিরল উল্কাবর্ষণ দেখা যাবে।

COMMENTS

[gs-fb-comments]