নিজের দলকে যে জায়গায় এগিয়ে রাখছেন শান্ত

নিজের দলকে যে জায়গায় এগিয়ে রাখছেন শান্ত

১০ বছরে প্রথমবার!
৫ বছরের চুক্তিতে ম্যান সিটিতে যাচ্ছেন মেসি
দুই ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ নেইমার

নিঃসন্দেহে মুশফিকুর রহীমই তার দলের প্রধান নির্ভরতা। সেরা সম্পদ। প্রধান চালিকাশক্তি। মুশফিকের ব্যাট জ্বলে ওঠা মানেই জয়ের পথ খুঁজে পাওয়া।

এরপরও নাজমুল হোসেন শান্তর আরও একটি নির্ভরতা এবং স্বস্তির জায়গা আছে। তাহলো ‘ফিল্ডিং’। দলের বেশির ভাগ সদস্যই বয়সে নবীন। সৌম্য সরকার, সাইফ হাসান, আফিফ হোসেন ধ্রুব, ইরফান শুক্কুর, তৌাহিদ হৃদয়, পারভেজ হাসান ইমন, মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধ, নাইম হাসান, নাসুম আহমেদ ও লেগি রিশাদ হোসেন- সবাই বয়সে তরুণ ও ফিট।

তাদের সাথে তিন দ্রুত গতির বোলার তাসকিন আহমেদ, আল আমিন হোসেন ও আবু জায়েদ রাহিও নাজমুল শান্তর দলে। এমন এক তারুণ্য নির্ভর দল নিয়ে শান্ত আশাবাদী। তার আস্থার জায়গা হলো ফিল্ডিং।

‘সব মিলিয়ে আমাদের দল ভালো হয়েছে। তিনটা দলই খুব ভালো। আমাদের যেটা ইতিবাচক দিক, তাহলো- ফিল্ডিং বিভাগটা খুব ভালো। যেহেতু দলে অনেক তরুণ। তাই গ্রাউন্ড ফিল্ডিংটা বেশ ভাল। সঙ্গে বোলিং-ব্যাটিং তো আছেই। আশা করছি তিন বিভাগেই ভালো কিছু হবে’- বললেন শান্ত।

এই তারুণ্য নির্ভর দল নিয়ে শিরোপা জেতার আশা শান্তর, ‘প্রতেককটা দলই ভালো। তারপরও নিজ দলের কাছে অবশ্যই প্রত্যাশা অনেক বেশি আমার। আমাদের যে দল হয়েছে, চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্য খেলবো। আশা করছি আমরা যদি ন্যাচারাল খেলাটা খেলতে পারি তাহলেই ভালো কিছু হবে।’

রাত পোহালে এমন এক আসর এবং উদ্বোধনী ম্যাচেই মাঠে নামতে হবে তার দলকে। শান্ত রীতিমত রোমাঞ্চিত। অন্যরকম ভাললাগায় আচ্ছন্ন, ‘কখনো তো এতদিন মাঠের বাইরে থাকি নাই। মাঠে এমন একটা সিরিজ শুরু হচ্ছে। অবশ্যই অনেক রোমাঞ্চিত। আশা করছি খুব ভালো একটা সিরিজ হবে।’

COMMENTS

[gs-fb-comments]